রামুতে নারীর প্রতি সহিংসতা রোধে আস্থা প্রকল্পের বক্তৃতা প্রতিযোগিতা

সোয়েব সাঈদ, রামুঃ
আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০২০ উদযাপনের অংশ হিসেবে কক্সবাজারের রামু উপজেলার যুব অধিদপ্তরের সহযোগিতায় জোয়ারিয়ানালা এইচএম সাঁচি উচ্চ বিদ্যালয়ে আস্থা প্রকল্পের উদ্যোগে উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার অনুষ্ঠিত হয়েছে। চল্লিশ জন কিশোর-কিশোরীর উপস্থিতিতে দশজন প্রতিযোগি এতে অংশ নেন। বক্তব্যে বিষয় ছিলো ‘জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা প্রতিরোধে যুব সমাজ কিভাবে ভুমিকা রাখতে পারে”।
উল্লেখ্য, আস্থা প্রকল্পটি নেদারল্যান্ডস এম্বাসির অর্থায়নে, ইউএনএফপিএ ও আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সহযোগিতায় অংশীদার সংগঠন ইপসা কক্সবাজার জেলার মাঠ পর্যায়ে বাস্তবায়ন করে আসছে।

কোভিড পরিস্থিতি বিবেচনা করে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে অনুষ্ঠানটি সম্পন্ন করা হয়। কিশোর-কিশোরীদের নিয়ে এ প্রতিযোগিতা আয়োজনের উদ্দেশ্য ছিল নারী ও কন্যা শিশুদের নির্যাতনের মুখে ঠেলে দেয় এমন সব ক্ষতিকর সামাজিক প্রথা ও রীতিনীতি সম্পর্কে সচেতন করা এবং নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় সমতার পৃথিবী গড়ে তোলার ক্ষেত্রে যুব সমাজকে আরো বেশী সক্রিয় করে তোলা।

আয়োজনের প্রধান অতিথি ছিলেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. আজিজুল হক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন স্কুলের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. তালিব উল্লাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন- স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সদস্য, শিক্ষকবৃন্দ ও প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা ইপসার প্রতিনিধিবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধান অতিথি মোঃ আজিজুল হক বলেন-“নির্যাতনহীন সমাজের স্বপ্ন আমরা দেখি, তার জন্য যে লড়াই, সে লড়াইয়ে আমি এবং আমার স্কুল অংশীদার হিসেবে থাকুক। আমরা নিশ্চয় একদিন সফলকাম হব।”

আস্থা প্রকল্পের জেলা সমন্বয়ক মোঃ জসিম উদ্দিন সবাইকে নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ২০২০ এবং এই আয়োজনের প্রেক্ষাপট তুলে ধরে বলেন “আপনাদের সক্রিয় অংশগ্রহন কল্পে এ আয়োজন।” তিনি মাল্টি-সেক্টোরাল সেবা, নারী নির্যাতন প্রতিরোধ -এর জন্য টোল ফ্রি নাম্বার এর ব্যাবহার এবং অন্যান্য প্রাসাঙ্গিক বিষয় গুলি সবার সামনে আলোচনা করেন। অনুষ্ঠানে অতিথিবৃন্দ উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরষ্কার বিতরন করেন।