শীতে উষ্ণতার পরশ এক কাপ চা

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ
এই শীতে নানান স্বাদের চা তৈরি করে পান করুন। যা স্বাস্থ্যের জন্যেও উপকারী। পানীয় হিসেবেই শুধু নয়, চা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও ঠাণ্ডা কাশি দূরে রাখতেও সাহায্য করে।

স্বাস্থ্য-বিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে বিভিন্ন স্বাদের চা’য়ের উপকারিতা তৈরি পদ্ধতি সম্পর্কে জানানো হল।

লেবু ও গোলমরিচের চা

এই ঝাঁজালো চা কেবল শরীরকে ‘ডেটক্স’ করে না পাশাপাশি রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। কালো গোল মরিচ নানান অসুখের বিরুদ্ধে কাজ করে এবং গলার খুশখুশেভাব কমায়।

তৈরি পদ্ধতি:
প্রথমে এক কাপ পানি ফুটিয়ে নিন। এতে একটা লেবুর সম্পূর্ণ রস ও ১/৪ চা-চামচ কালো গোল মরিচের গুঁড়া মেশান। উপকারিতা বাড়াতে এতে এক চিমটি হলুদ মেশাতে পারেন। তিন চার মিনিট অপেক্ষা করে তা একটা কাপে ঢেলে নিন। মিষ্টিভাব আনতে এতে এক চামচ মধু যোগ করতে পারেন।

দারুচিনি ও তুলসী চা

তুলসী রক্ত পরিষ্কার করতে চমৎকার কাজ করে। এটা বুকে কফ জমা রোধ করে ও গলা ব্যথা কমায়, দারুচিনি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় এবং সাধারণ সংক্রমণের বিরুদ্ধে কাজ করে।

তৈরি পদ্ধতি:
এক্ কাপ গরম পানিতে ৮-১০টি তুলসী পাতা ফুটিয়ে নিন। ফুটন্ত অবস্থায় এতে দারুচিনির কাঠি বা দারুচিনির গুঁড়া মিশিয়ে কিছুক্ষণ আরও ফুটান। চা ফুটে আসলে এতে নিজের স্বাদ মতো মধু ও লেবু যোগ করে নিন।

আদা ও পুদিনা চা

তাজা পুদিনা কেবল খাবারের স্বাদই বাড়ায় না বরং হজমেও সহায়তা করে ও পাকস্থলির সমস্যা দূর করে। অন্যদিকে আদা রক্ত পরিষ্কার করে শরীর সুস্থ রাখে এবং ঠাণ্ডার প্রভাব কমায়।

তৈরি পদ্ধতি:
একটা কাপ ফুটন্ত পানিতে ৬-৭টি পুদিনার পাতা ও এক টেবিল-চামচ আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে নিন। আদা টুকরা করে দেওয়ার চেয়ে কুচি করে দেওয়া ভালো, এতে সম্পূর্ণ নির্যাস বের হয়।

চার পাঁচ মিনিট ভালো মতো ফুটিয়ে, গরম গরম পরিবেশন করুন।

মসলা চা

এই চায়ের কোন জুড়ি নেই। এটা বানাতে দুইটা লবঙ্গ গুঁড়া, একটা ছোট দারুচিনির ‍টুকরা, দুইটা কালো গোল মরিচ ও দুইটা কাঁচা এলাচ নিন।

একটা পাত্রে দুই কাপ পানি নিয়ে তাতে চা পাতার সঙ্গে এই মসলাগুলো গুঁড়া করে মিশিয়ে ফুটিয়ে নিন। এরপর এতে চিনি ও দুধ মিশিয়ে পাঁচ মিনিট মাঝারি আঁচে ফুটিয়ে নিতে হবে।

এরপর চা পাতা ছেঁকে গরম গরম চা পরিবেশন করুন।

সূত্র : বিডিনিউজ