হারবাং এ কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
চকরিয়া উপজেলার হারবাংস্থ রাখাইন বিহার সমূহে মাদকসেবী, জুয়াডী এবং আড্ডাবাজদের ক্রমাগত উৎপাত বন্ধ করা, মংছিংথোইং রাখাইনকে জবাই করে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় এলাকায় উদ্ভুত পরিস্থিতিতে করণীয় নির্ধারণ, সামাজিক সংহতি ও ঐক্য গঠনসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে প্রত্যেক বিহারের প্রতিনিধি নিয়ে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৭ নভেম্বর বিকালে উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়।

কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদ চকরিয়া উপজেলা শাখার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন চকরিয়া উপজেলা শাখার সভাপতি শিক্ষক প্রিয়দা বড়ুয়া। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার জেলা বৌদ্ধ সুরক্ষা পরিষদের সভাপতি ভদন্ত প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু।

চকরিয়া উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আলুরী রাখাইন রাখাইনের পরিচালনায় অনু্ষ্ঠিত সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শুভংকর বড়ুয়া। সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক বিপক বড়ুয়া বিটু,পটল বড়ুয়া, অর্থ সম্পাদক রাজু বড়ুয়া। রামু উপজেলা শাখার সভাপতি  রিটন বড়ুয়া (এমইউপি), সাধারণ সম্পাদক তুষিত বড়ুয়া, উখিয়া উপজেলা শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক সুনিল বড়ুয়া প্রমূখ।

সভায় উপদ্রুত হারবাং গুনামেজু বিহার, শাক্যমুনি বিহার, ধর্মসুখ বিহার, ডেমিকারামা বিহার, সুইক্রাউ বিহার, বন বিহারের প্রতিনিধি বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। প্রতিনিধিবৃন্দের বক্তব্যে এলাকার বিভিন্ন আসমস্যার বিষয়াদি উঠে আসে। একইসাথে সভায় করনীয়ও নির্ধারণ করা হয়েছে।

ভদন্ত প্রজ্ঞানন্দ ভিক্ষু তাঁর বক্তব্যে বলেন, বিহার সমূহের পবিত্রতা রক্ষা, মাদকসেবী, জুয়াডীদের উৎপাত বন্ধ এবং সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। এলাকার যুবক মংছিংথোইং রাখাইনকে জবাই করে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় জড়িত অপরাধীদের আইনের আওতায় আনতে জোর তৎপরতা চলছে, চলবে। আপনাদের থেকে আমি কেবল সামাজিক সংহতি এবং ঐক্য কামনা করি।