কক্সবাজারে প্রথমার বইমেলায় ভাষাপ্রেমীদের ভিড়

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী, কক্সবাজার থেকে:
লেখক আর ভাষাপ্রেমীদের পদচারণায় কক্সবাজারে পুরোপুরি জমে উঠেছে পাবলিক হলের প্রথমার বই মেলা। বেলা ১১টা থেকে রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্তই শীর্ষ দৈনিক প্রথম আলোর প্রকাশনা প্রতিষ্টান প্রথমার উদ্যোগে আয়োজিত ছয়দিন ব্যাপী এ মেলায় ভিড় করছেন বিভিন্ন বয়সী পাঠকেরা। বিক্রিও হচ্ছে বেশ ভাল। তবে রোববার রাত আটটায় মেলার পর্দা নামবে। মেলায় সার্বিক সহযোগিতা দিচ্ছেন প্রথম আলো বন্ধুসভার সদস্যরা।

শনিবার মেলায় গিয়ে দেখা যায়, বিকালেও ব্যাপক বইপ্রেমীদের ভিড়। ভাল লেখক ও মানের বই থাকায় ক্রেতারা ফিরনছেনা খালি হাতে।

কথা হয় শিশু সন্তান নিয়ে মেলায় আসা বাজারঘাটা গ্রামের গৃহবধু উম্মে সালমার সঙ্গে। তিনি বলেন, আনিসুল হকের ‘মা‘ ও আরিফ রহমানের ‘ত্রিশ লক্ষ শহিদ বাহুল্য নাকি বাস্তবতা‘ বই দুটি ক্রয় করেছি। মেলায় আসা সব বইয়ের মান অত্যন্ত ভাল।

বাহারছড়ার গণস্বাস্থ্য হাসপাতালের ডা: তানবির বলেন, প্রথমা প্রকাশনের প্রায় সব বই ভালো মানের। তাই মেলায় এসেছি।
শহরের বায়তুশশরফ জাব্বারিয়া একাডেমির অধ্যক্ষ ছৈয়দ করিম বলেন, তাঁরা প্রতিষ্ঠানের পাঠাগারের জন্য ৫ হাজার টাকার বই কেনেন। এসব বই পাঠাগার রাখলে দুর্গম উপকূলের শিক্ষার্থীরা উপকৃত হবে। এর মধ্যে বেশির ভাগ মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে।

কক্সবাজার প্রথম আলো বন্ধু সভার সভাপতি কাজী মিজান ও সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহীম খলিল বলেন, এই শহরে বইমেলা খুব একটা হয় না। শহরের পাঠাগারগুলোতেও ভালো মানের বই নেই। কিছু বই পাওয়া গেলেও ভুল বানানে ভরা। ওই সব বইতে আধুনিক ভাষারীতি অনুসরণ করা হয় না। তাই প্রথমার বইমেলায় ছুটে আসছে ভাষাপ্রেমীরা। তারা অধিকাংশ মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বই ক্রয় করছেন।

Book Fair

কক্সবাজার নোঙরের প্রধান নির্বাহী দিদারুল আলম রাশেদ বলেন, বই মানুষের প্রকৃত বন্ধু। ভালো বইয়ের কোনো বিকল্প নেই। একটি ভালো বই আজ ও আগামীর পথ প্রদর্শক। বই বর্তমানকে নিয়ে যায় ভবিষ্যতের দিকে। বইয়ের মাধ্যমেই আমরা অতীত জানতে পারি। বইয়ের মাধ্যমে আমরা জ্ঞানে-বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ হই। এই জন্য প্রথমার বই মেলায় এসে ২২টি বই ক্রয় করেছি। এসব বইয়ের মান খুবই ভাল। তিনি আরও বলেন-প্রথমার বই মেলার মাধ্যমে জেলার মানুষের মনের পরিবর্তন হয়েছে।

প্রথমা প্রকাশনের সহকারী ব্যবস্থাপক মো. জাকির হোসেন বলেন, কক্সবাজারে প্রথমবারের মতো এই বইমেলার আয়োজন হলেও বিক্রি ভালোই হচ্ছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন শ্রেণিপেশার লোকজন মেলায় আসছেন। বইমেলায় প্রথমা প্রকাশন ছাড়াও দেশি-বিদেশি বিখ্যাত লেখকদের বই রাখা হয়েছে।

প্রথম আলোর কক্সবাজার আঞ্চলিক অফিস প্রধান খ্যাতিমান সাংবাদিক আবদুল কুদ্দুস রানা বলেন, দশ লাখ টাকার উন্নত মানের বই মেলায় আনা হয়েছিল। ইতোমধ্যে ৬ লাখ টাকার বই বিক্রি হয়েছে। আজ শেষ দিনে ক্রেতার সংখ্যা আরও বাঁড়বে। প্রথমা প্রকাশনের লেখক, বই ও কাগজ অনেক উন্নত মানের। তাই বিক্রি বেশ ভাল হচ্ছে।