কক্সবাজারে বিশ্বএনেসথেসিয়া দিবস উদযাপন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ
নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ১৭৪ তম বিশ্ব এনেসথেসিয়া দিবস উদযাপন করল কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ এবং জেলা সদর হাসপাতাল। এনেসথেসিয়া আইসিইউ ও পেইন মেডিসিন বিভাগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রতি বছরের মত এবারও শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করা হয় ১৭৪ বছর আগের ১৬ অক্টোবর, ১৮৪৬ সালের এ দিনটাকে।

আমেরিকার ম্যাসাচুসেস্ট জেনারেল হাসপাতালে ইথার গ্যাস প্রয়োগে মানব ইতিহাসে প্রথম ব্যথামুক্ত অপারেশন সফল করেন ডেন্টিস্ট এনেসথেটিস্ট ডা. টি. জে. মর্টন, সার্জন ছিলেন জে. কে. ওয়ারেন এবং ভাগ্যবান রোগীর নাম ই. জি. এবট।

আয়োজনের শুরুতে করোনাক্রান্ত হয়ে শাহাদাত বরণকারী এনেসথেটিস্ট ও আইসিইউ চিকিৎসকসহ দেশ-বিদেশের সকল চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী এবং প্রায় লক্ষাধিক মানুষের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান আকর্ষণ ছিল সার্জারী রোগীদের অপারেশনের পূর্বে এনেসথেসিয়া ফিটনেস চেকআপের জন্য নবসজ্জিত ‘প্রিএনেসথেটিক এসেসমেন্ট কর্ণার’ উদ্বোধন। সকাল ১১ টায় উদ্বোধন করেন হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো: রফিক-উস-ছালেহীন এবং কক্সবাজারের প্রথম এনেসথেসিওলোজিস্ট সিনিয়র কনসালটেন্ট (অব.) ডা. রফিকুল হাসান। এখন থেকে হাসপাতালের প্রত্যেক অপারেশন রোগী ডিজিটাল মনিটর, অফথালমোস্কোপ, অরোস্কোপ সহ আধুনিক সব যন্ত্রপাতির সাহায্যে লিখিত ডকুমেন্ট সহ ফিটনেস চেকআপ সুবিধা ভোগ করবেন।

‘এনেসথেসিওলোজির সংক্ষিপ্ত ইতিহাস ও বিকাশ প্রসঙ্গ’ লিখিত উপস্থাপন করেন বিভাগীয় সহকারী অধ্যাপক ডা. বিধান পাল। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. সুমন বড়ুয়া, সহযোগী অধ্যাপক (অর্থো) ডা. আয়ুব আলী, সহযোগী অধ্যাপক (শিশু সার্জারী) ডা. মাহফুজুল কবীর, সহকারী অধ্যাপক (সার্জারী)বৃন্দ যথাক্রমে ডা. সাখাওয়াত হোসেন, ডা. আরিফ হোসেন, ডা. নজরুল ইসলাম, ডা. এস. এম সরোয়ার, ডা. রুপম তালুকদার, গাইনী বিভাগীয় প্রধান ডা. আনোয়ারা বেগম, এনেসথেসিয়া বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মো: ইউনুছ, মেডিকেল অফিসার ডা. অভীক বড়ুয়া, ডা, হাবিবুল্লাহ, ডা. নওরীন, ডা. খোকন বড়ুয়া, ডা. ওমর ফারুক, ডা. বিভোর চাকমা, ডা. কৌশিক দত্ত, জুনিয়র কনসালটেন্ট (সার্জারী) ডা. টুটুল তালুকদার, আর.এস. ডা. রিদোয়ান তারিন ও ওটি নার্স, স্টাফ প্রমুখ। দিবস উদযাপন উপলক্ষে শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন অধ্যাপক ডা. অনুপম বড়য়া, অধ্যক্ষ ও বিভাগীয় প্রধান (মেডিসিন), কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, হাসপাতাল তত্ত¡াবধায়ক ডা. মো: জাকির হোসেন, প্রাক্তন তত্ত্বাবধায়ক ডা. মো: মহিউদ্দিন, বিভাগীয় প্রধান (সার্জারী) ডা. জাহাঙ্গীর কবির ভূঁইয়া, বাংলাদেশ সোসাইটি অব এনেসথেসিওলোজিস্ট (বি.এস.এ) এর কেন্দ্রীয় সভাপতি অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বণিক, মহাসচিব অধ্যাপক ডা. কাউছার সরদার, বিএসএ রংপুর শাখা সভাপতি অধ্যাপক ডা. সায়েদুর রহমান শাহীন এবং আন্তর্জাতিকভাবে খ্যাত লিজেন্ড অধ্যাপক (অব.) এনেসথেসিওলোজিস্ট ডা. মো: খলিলুর রহমান স্যার। অনুষ্ঠানে কেক কেটে উপস্থিত সবাইকে আপ্যায়ন এবং সুভ্যেনির টিশার্ট, বিভাগের সবাইকে ওটি ড্রেস ইত্যাদি বিতরণ করা হয়। পরিশেষে, বর্ণাঢ্য র‌্যালির পর ধন্যবাদ জ্ঞাপন এবং সবার সুস্থতা কামনা করে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন এনেসথেসিয়া বিভাগের প্রধান ডা. শরীফ মোহাম্মদ গাউছুল আকবর, সহকারী অধ্যাপক, এনেসথেসিওলোজী।