রামুর জোয়ারিয়ানালায় ধর্ষকের শাস্তি দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক টিমের মানববন্ধন

সোয়েব সাঈদঃ
সারাদেশে বেড়েই চলেছে ধর্ষণ। যা এখন নিত্যদিনের খবরে পরিনত হয়েছে। নারীরা আজ বাড়িতেও নিরাপদ নেই। চারদিকে ধর্ষণ। ধর্ষণের ভয়ে আতংকিত নারী সমাজ। ঘৃণ্য এ অপকর্ম থেকে নারীদের সুরক্ষা নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবিতে পরিনত হয়েছে। এজন্য সর্বত্র নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি (মৃত্যুদণ্ড) কার্যকর করতে হবে।
রামুর জোয়ারিয়ানালা মাদ্রাসা গেইট স্টেশনে আয়োজিত মানববন্ধন সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিমের উদ্যোগে আয়োজিত এ মানববন্ধনে অংশ নেন, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের সর্বস্তুরের জনতা। এতে ‘ধর্ষকদের শাস্তি চাই’ সম্বলিত বিভিন্ন পোষ্টার ও প্লেকার্ড প্রদর্শণ করেন অংশগ্রহণকারিরা।

মানববন্ধনে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমদ প্রিন্স, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্যবৃন্দ, জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর মোশাররফ হোসেন সিকদার, পল্লী চিকিৎসক সোহেল সাঈদ, কক্সবাজার ব্লাড ডোনার’স সোসাইটির এডমিন এ্যাপোলো বড়ুয়া, জোয়ারিয়ানালা স্বেচ্ছাসেবক টিমের এডমিন রহিম উদ্দিন সোহেল, তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ, তৌহিদুল ইসলাম বারেক, নুরুল আলম, মডারেটর ছৈয়দ করিম, আদনান সাহেদ, এনামুল হক, মোহাম্মদুল হক, দেলোয়ার হোসেন, হারুন অর রশিদ, ইমরুল রনি, কার্যকরী সদস্য সরওয়ার কামাল সাহেদ, সাজ্জাদ রনি, খাইরুল বশর বাবুল, শেফায়েত মোহাম্মদ ফাহিম, এনামুল হক এনাম, চেতনা ব্লাড ব্যাংকের প্রতিনিধি, রামু ব্লাড ডোনার’স সোসাইটির প্রতিনিধি সহ জোয়ারিয়ানালার সর্বস্তরের জনসাধারণ।

মানববন্ধন থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নিকট ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তির ( মৃত্যুদন্ড) আইন প্রণয়ন এবং বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাকে যারা ধর্ষণ, হত্যা সহ বিভিন্নভাবে অপবিত্র করেছেন তাদের বিচার করে এদেশের মাটিকে পবিত্র করার আহবান জানানো হয়। পরিশেষে আর কোন নারী যেন ধর্ষিত না হন সে বিষয়ে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহনে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়।