চকরিয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা জবর দখলের হিড়িক

এ.এম হোবাইব সজীব, চকরিয়া:
কক্সবাজারের চকরিয়ায় সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা জবর দখলের হিড়িক পড়েছে। ইতোমধ্যে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে উপজেলার চিরিঙ্গা-বদরখালী সড়কের পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়নের চৌয়ার ফাঁড়ি এলাকায় নতুন করে কয়েকটি দোকানঘর নির্মাণ করেছে। সড়কের পাশ দিয়ে লোকজনের চলাচল কঠিন হয়ে পড়েছে। এতে ওই এলাকায় দূর্ঘটনার আশঙ্কায় দেখা দিয়েছে। অথচ সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তারা এব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করছেন না।

স্থানীয় লোকজন জানান, উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের কোরালখালী এলাকার মৃত আলী মিয়ার পুত্র বেলাল উদ্দিন (৩৫) সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা দখল করে দোকান ঘর গড়ে তুলছে। ওই ব্যক্তি ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে সড়কের জমি দখল করে স্থাপনা নির্মান অব্যাহত রখেছে। তিনি কয়েকজন মেস্ত্রী ও শ্রমিক দিয়ে দোকান নির্মাণ কাজ দ্রুত চালিয়ে যাচ্ছেন। এতে ওই এলাকায় এসব দোকান ঘর নির্মিত হলে প্রতিনিয়ত সড়ক দূর্ঘটনা ও যানজট সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

পশ্চিম বড়ভেওলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার মোজাম্মেল হক জানান, দখলদার বেলাল উদ্দিন এলাকায় সড়কের এক পাশে রাস্তার জমি দখল করে অবৈধভাবে মার্কেট নির্মাণ করছে। তিনি কাউকে তোয়াক্কা করছেন না। জোরপূর্বকভাবে দোকান ঘর তৈরী করে যাচ্ছেন। ওই এলাকায় দোকানঘর নির্মিত হলে রাস্তার পরিধি অনেকাংশে কমে যাবে। এতে ঘন ঘন দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন এলাকাবাসি। সড়ক বিভাগের জায়গা দখল হয়ে যাওয়ায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে। অজ্ঞাত কারণে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তারা নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে। গত এক সপ্তাহ ধরে সরকারি জমি দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করলেও এসব বিভাগের কর্মকর্তা কেউ মুখ খুলছে না।

কক্সবাজার সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী রানা প্রিয় বড়ুয়া আমাদের রামু ডটকমকে জানান, চিরিঙ্গা ও বদরখালী সড়কে সওজের জায়গা দখল করে দোকানঘর তৈরী করছেন এই রকম সংবাদ পেয়েছি। যে কোন সময় দখলদারদের উচ্ছেদ করা হবে এবং দখলকাজে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।