হিরোশিমা দিবসে নানা আয়োজন

১৯৪৫ সালের ৬ আগস্ট। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের অন্তিমলগ্নে এই দিনে মার্কিন বাহিনী জাপানের হিরোশিমায় পারমাণবিক বোমা হামলা চালায়। ৯ আগস্ট নাগাসাকিতে একই ধরনের হামলা চালানো হয়।

এ দুই হামলায় কয়েক লাখ নিরীহ বেসামরিক মানুষ নিহত হয়। এ ছাড়া কয়েক লাখ মানুষ চিরতরে পঙ্গু হয়ে যায়।

এর পর থেকেই ৬ আগস্টে হিরোশিমা দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

ইতিহাস থেকে জানা যায়, পৃথিবীর ইতিহাসে এটি একটি জঘন্যতম হামলা। এই হামলায় চোখের পলকে হিরোশিমা ও নাগাসাকি মৃত্যুপুরীতে পরিণত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে শান্তিপ্রিয় মানুষ নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। বাংলাদেশেও বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে এ দিবস পালন করবে।

দিবসটি উপলক্ষে শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে বাংলাদেশ শান্তি পরিষদ। সভায় প্রধান অতিথি থাকবেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন।

এদিকে, পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিন বেল্ট ট্রাস্ট সন্ধ্যা ৬টায় শাহবাগ চত্বরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী শান্তি সমাবেশের আয়োজন করেছে। অনুষ্ঠানে গুলশান ও শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলায় নিহতের স্মরণে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও ফানুস ওড়ানোসহ বিশ্বশান্তি রক্ষার আহ্বানে বিশেষ প্রার্থনার আয়োজন করা হয়েছে।