বিদায়বেলায় ধোনিকে প্রশংসায় ভাসালো আইসিসি

ক্রীড়া ডেস্কঃ
মহেন্দ্র সিং ধোনি অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন ১৫ আগস্ট সন্ধ্যায়। এরপর থেকেই শুরু হয়েছে তাকে শুভেচ্ছা এবং অভিনন্দন জানানো। পুরো ক্রিকেটবিশ্বেই এখন চলছে ধোনিকে স্মরণ করা। তার ক্যারিয়ার, তার অধিনায়কত্ব, বিশেষত্ব এবং কার সঙ্গে কি সম্পর্ক ছিল- সব নিয়েই বিশ্লেষণ চলছে।

বাদ গেলো না খোদ আইসিসিও। তারাও বিদায়বেলায় ধোনিকে প্রশংসায় ভাসিয়ে দিলো। উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলো ক্যাপ্টেন কুল খ্যাত ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির। আইসিসি লিখেছে, ‘প্রতিটি প্রজন্মের জন্যই ধোনি হচ্ছে একটি অনুপ্রেরণার নাম। নিশ্চিতভাবেই ক্রিকেট তাকে মিস করবে।’

১৫ বছরের ক্যারিয়ারের শেষ হয়েছিল ধোনির গত বছর ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে। টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে গিয়েছিল ভারত। ওই ম্যাচে ধোনি রানআউট না হলে হয়তো ম্যাচের চিত্রটা হতে পারতো ভিন্ন। সেই ম্যাচের পর আর মাঠেই নামা হয়নি ভারতের সবচেয়ে সফল অধিনায়কের।

মাঝে করোনাভাইরাসের কারণে পুরোপুরি অনিশ্চিত হয়ে যায় তার ক্যারিয়ারের শেষাংশ। সামনে আইপিএল গড়াচ্ছে মাঠে। তার আগেই বিদায় বলে দিলেন ধোনি। এর আগে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে টেস্ট থেকে বিদায় নিয়েছিলেন। এবার আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে গুডবাই জানিয়ে দিলেন এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টের মাধ্যমে।

অধিনায়ক হিসেবে আইসিসির সবগুলো ট্রফিই জিতেছেন তিনি। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ওয়ানডে বিশ্বকাপ, আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ- সবগুলোই।

আইসিসি থেকে পাঠানো প্রধান নির্বাহী মানু শাওনির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ক্রিকেটে মহেন্দ্র সিং ধোনি হচ্ছেন সর্বকালের সেরাদের একজন। ২০১১ বিশ্বকাপের ফাইনালে ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ধোনি যে উইনিং শটটা নিয়েছিলেন, সেটা সারা জীবনের জন্য ক্রিকেটপ্রেমীদের হৃদয়ে গেঁথে আছে।’ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফাইনালে শেষ মুহূর্তে ছক্কা মেরেই ভারতকে জিতিয়েছিলেন ধোনি। সেটাকেই ইঙ্গিত করেন আইসিসি প্রধান নির্বাহী।

তিনি আরও বলেন, ‘পুরো প্রজন্মের জন্যই একটি অনুপ্রেরণার নাম হচ্ছেন ধোনি। নিশ্চিতভাবেই ক্রিকেট তাকে মিস করবে। আইসিসির পক্ষ থেকে, আউটস্ট্যান্ডিং ক্রিকেট ক্যারিয়ারের জন্য আমি তাকে অভিনন্দন জানাই। তার ভবিষ্যত জীবনের সাফল্য কামনা করি।’

৯৮ টেস্ট খেলেছেন ধোনি। রান করেছেন ৪৮৭৬। ক্যাচ ধরেছেন ২৫৬টি এবং স্ট্যাম্পিং করেছেন ৩৮টি। ৩৫০ ওয়ানডে খেলে করেছেন ১০৭৭৩ রান। ক্যাচ ধরেছেন ৩২১টি এবং স্ট্যাম্পিং করেছেন ১২৩টি।

সূত্রঃ জাগোনিউজ