৫ কার্যদিবসে আত্মসমর্পণ করে ১১৭৯৬ আসামির জামিন

অনলাইন ডেস্কঃ
মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত ১৯ থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত অধস্তন আদালতে আত্মসমর্পণ করে ১১ হাজার ৭৯৬ জন আসামি জামিন পেয়েছে। তবে ৪ হাজার ৩১০টি মামলায় আত্মসমর্পণের পর ৯৩৮ জনের জামিন হলেও তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রোববার (২৬ জুলাই) সুপ্রিম কোর্টের স্পেশাল অফিসার ও মুখপাত্র ব্যারিস্টার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য জানান।

গত ৪ জুলাই স্বাস্থ্যবিধি এবং শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব কঠোরভাবে অনুসরণ করে ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তি শুধুমাত্র চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পণ করতে পারবেন বলে সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। পরে গত ৫ জুলাই থেকে এসব কোর্টে আত্মসমর্পণ শুরু করে আসমিরা। এরপর গত ১১ জুলাই এ সংক্রান্ত আর একটি প্র্যাকটিস নির্দেশনা সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন থেকে বিজ্ঞপ্তি আকারে জারি করা হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রধান বিচারপতি সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ বিচারপতিদের সঙ্গে আলোচনাক্রমে এ মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন যে, স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ জারিকৃত স্বাস্থ্যবিধি এবং শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব কঠোরভাবে অনুসরণ করে ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্ত ব্যক্তি/ব্যক্তিরা অধস্তন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে পারবেন।

এ বিষয়ে অধস্তন আদালতের বিচারক/ম্যাজিস্ট্রেট এজলাস কক্ষে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালনসহ শারীরিক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিতকরণে প্রয়োজনীয় কার্যপদ্ধতি নির্ধারণ করবেন। অর্থাৎ অধস্তন সব কোর্টেই আত্মসমর্পণের সুযোগ দেয়া হয়।

মোহাম্মদ সাইফুর রহমান বলেন, গত ১৯ থেকে ২৩ জুলাই (রোববার-বৃহস্পতিবার) পর্যন্ত সারাদেশের অধস্তন আদালতে ৪ হাজার ৩১০টি মামলায় আত্মসমর্পণ আবেদন নিষ্পত্তি হয়। মোট ১১ হাজার ৭৯৬ জন অভিযুক্ত ব্যক্তির জামিন মঞ্জুর হয়েছে। ৯৩৮ জন অভিযুক্ত ব্যক্তিকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সূত্রঃ জাগোনিউজ