এভাবে খেললে চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও হারব: মেসি

ক্রীড়া ডেস্কঃ
বার্সেলোনা যে তাদের চিরচেনা দাপুটে রূপ হারাতে বসেছে, অনেক আগেই বুঝতে পেরেছিলেন লিওনেল মেসি। অধিনায়ক তাগিদ দিয়েছিলেন খেলায় উন্নতি করার, নইলে হাতছাড়া হয়ে যাবে লা লিগার মুকুট। ফলে গেছে সময়ের অন্যতম সেরা ফুটবলারের কথা। এবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নিয়ে নিজের ভাবনার কথা জানালেন। মনে করিয়ে দিলেন, এভাবে চলতে থাকলে সেখানেও হারের বিষাদ তাদের সঙ্গী হবে।

লা লিগায় বৃহস্পতিবার বার্সেলোনা ও রিয়াল মাদ্রিদ নেমেছিল ভিন্ন ভিন্ন লক্ষ্য নিয়ে। জিতলেই চ্যাম্পিয়ন-এই সমীকরণ রিয়াল মিলিয়ে নিয়েছে ভিয়ারিয়ালকে ২-১ গোলে হারিয়ে। অন্যদিকে, নিজেদের মাঠে ওসাসুনার বিপক্ষে একই ব্যবধানে হেরে গেছে বার্সেলোনা।

লিগের ‍মুকুট খোয়ানো বার্সেলোনার সামনে এখন শিরোপা বলতে বেঁচে আছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফিরে পাওয়া। আগামী অগাস্টে শেষ ষোলোর ফিরতি লেগে নাপোলির মুখোমুখি হবে কিকে সেতিয়েনের দল। প্রথম পর্বে ইতালির দলটির মাঠ থেকে ১-১ ড্র নিয়ে ফিরেছিল বার্সেলোনা।

প্রথম লেগের ড্র এবং একটি মূল্যবান অ্যাওয়ে গোল থাকায় সুবিধাজনক অবস্থায় আছে বার্সেলোনা। কিন্তু পুনরায় শুরু হওয়া লা লিগায় নিজেদের ছন্দহীন খেলা দেখে শঙ্কিত মেসি।

“আমরা যদি এভাবেই চলতে থাকি, তাহলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে নাপোলির কাছে হারব। আমি অনেকবার বলেছি যে, যদি আমরা এভাবে খেলি, তাহলে লা লিগা জিততে পারব না এবং একই কথা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের বেলায়ও হবে।”

করোনাভাইরাসের থাবায় লিগ স্থগিত হয়ে যাওয়ার সময়ও রিয়ালের চেয়ে ২ পয়েন্ট এগিয়ে ছিল বার্সেলোনা। কিন্তু পরে পথ হারিয়ে দ্বিতীয় স্থানে নেমে যাওয়া কাতালুনিয়ার দলটি পারেনি চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের টপকাতে। এল চিরিংগুইতোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসি জানান লিগের এমন সমাপ্তি আশা করেননি তিনি।

“মৌসুমটা এভাবে শেষ হবে, আমরা আশা করিনি। কিন্তু মৌসুমজুড়ে আমাদের বেলায় সেটাই হলো। দুর্বল প্রতিপক্ষের বিপক্ষে এবং গুরুত্বপূর্ণ সময়ে অধারাবাহিক থাকার কারণে আমরা অনেক অনেক বেশি পয়েন্ট হারিয়েছি।”

“আমরা ক্ষুব্ধ। সমর্থকরা ক্ষুব্ধ। কেননা, আমরা তাদেরকে কিছু দিচ্ছি না এবং তারা অধৈর্য হয়ে পড়েছে।”

এখন খেলোয়াড় এবং ক্লাবের আত্মসমালোচনায় বসে পথ খুঁজে বের করার সময় বলেও মনে করেন মেসি।

“অবশ্যই আমাদের আত্মসমালোচনা করতে হবে…খেলোয়াড় এবং ক্লাব উভয়কেই। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শুরুর আগে আমাদের হাতে সময় আছে এবং অবশ্যই আমাদের ঘুরে দাঁড়াতে হবে এবং পরিবর্তন আনতে হবে।”

সূত্রঃ বিডিনিউজ