স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মতামত সাপেক্ষে ঘরোয়া খেলাধুলার সিদ্ধান্ত

ক্রীড়া ডেস্কঃ
দেশ খেলাধুলা আয়োজনের উপযুক্ত কি না, খেলা মাঠে ফেরালে কোনো ঝুঁকি আছে কি না-এ প্রশ্নগুলোর সঠিক উত্তর স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে। তাই তো ঘরোয়া খেলা শুরু করা যাবে কি না, তা নিয়ে আগামী সপ্তাহে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলবেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

তারপর তিনি ফেডারেশনগুলোকে জানাবেন সরকারের সিদ্ধান্ত। বৃহস্পতিবার কয়েকটি ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদকের সঙ্গে ঘরোয়া ফুটবল নিয়ে আলোচনায় বসেছিলেন দেশের খেলাধুলার অভিভাবক। সেখানেই এমন কথা জানানো হয়েছে।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সভাপক্ষে ফেডারেশনগুলোর সঙ্গে বৈঠক শেষে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘আমরা আবার কবে ঘরোয়া খেলাধুলা শুরু করতে পারব, তার সিদ্ধান্ত নেব স্বাস্থ্য অধিদপ্তর তথা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মতামত সাপেক্ষে। যে খেলাগুলোয় শারীরিক সংস্পর্শ নেই, সেগুলো আমরা পুনরায় শুরু করতে চাই। তবে তা অবশ্যই স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মতামত সবুজ সংকেত নিয়ে। কারণ, আমরা খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছি।’

খেলাধুলা পরিচালনা করবে ফেডারেশন। তারা কিভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবং খেলোয়াড়দের নিরাপত্তার মধ্যে রেখে খেলা ও প্রশিক্ষণ চালু করতে চায় সেটা লিখিতভাবে দ্রুততম সময়ের মধ্যে মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী।

সূত্রঃ জাগোনিউজ