নাইক্ষ্যংছড়িতে বজ্রপাতে ৮ স্কুল শিক্ষার্থী আহত

নিজস্ব প্রতিনিধি:
নাইক্ষ্যংছড়ির তুলাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৮ শিক্ষার্থী বজ্রপাতে আহত হয়েছে। ৩০ জুলাই বিকাল ৩টায় স্কুল চলাকালে এ দুর্ঘটনার শিকার হয় শিক্ষাথীরা।

স্কুল শিক্ষকরা জানান,আহতদের মধ্যে ২ জনকে নাইক্ষ্যংছড়ি সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সূত্র আরো জানান, এ শ্রাবণের বৃষ্টির আগে প্রতিবছর আকাশে বিজলি দেখা দেয়।

শনিবারও এভাবে বৃষ্টির আগে বিকেল ৩ টার পর প্রচণ্ড গতিতে বজ্রপাত শুরু হয়। এমন একটি বজ্রপাত গিয়ে পড়ে উপজেলার দৌছড়ি ইউনিয়নের তুলাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আঙ্গিনায়। এতে একটি সেগুনকাঠ ভেঙে গিয়ে পড়ে স্কুলে। আর বজ্রপাতের আগুনের ঝলসাণিতে স্কুলে থাকা শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীর চোখে-মুখে অন্ধকার দেখা দেয়। এরই মধ্যে অজ্ঞান হয়ে পড়ে কয়েকজন। পরে দেখা যায় কয়েকজনের শরীর ঝলছে গেছে।

বজ্রপাতের ঘটনায় আহতরা হলেন ৫ম শ্রেণির ছাত্রী মাইমুনা আক্তার (১২), ৪র্থ শ্রেণির ছাত্র হানজালা (১১) মাইমুনা ৫ম শ্রেণি (১৩) ইয়াছমিন আক্তার-৩য় শ্রেণি (১০),উম্মে কুলছুম-৫ম (১৩) দিলরুবা খানম-৪র্থ (১১) দেলওয়ার হোসেন-৪র্থ (১২) ও ফাতেমা বেগম-৩য় (১০)।

এ ৮ জনের মধ্যে প্রথমোক্ত দু’জন নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। বাকীদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. ইদ্রিস এ সব ঘটনার কথা স্বীকার করে আমাদের রামু ডটকমকে জানালেন, তিনি বিষয়টি সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন মহলকে জানিয়েছেন।