জুনে বাংলাদেশকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত শ্রীলংকা

ক্রীড়া ডেস্কঃ
দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে করোনা আক্রান্তের হার শ্রীলংকা বেশ কম। দেশটিতে এখন পাঁচশ’র মতো করোনা রোগী রয়েছেন। গেল সপ্তাহ ধরে নতুন রোগী শনাক্ত হয়নি। শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ড তাই জুন-জুলাইয়ে ভারত এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজ আয়োজন করতে আগ্রহী।

বাংলাদেশ এবং ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন নিয়ে কথাও বলেছে তারা। তবে এই দুই বোর্ড থেকে এখনও কিছু নিশ্চিত করা হয়নি। শ্রীলংকা থেকে লকডাউন তুলে নেওয়া হচ্ছে। তারা তাই সিরিজ আয়োজনের আশা দেখছে। তবে ক্রিকেটারদের কোয়ারেন্টাইনে থাকাসহ অন্যান্য লজিস্টিক সাপোর্ট নিয়েও ভাবতে হচ্ছে বোর্ডগুলোর।

শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আসলে ডি সিলভা ক্রিকইনফোকে বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশ এবং ভারত ‍দুই বোর্ডের সঙ্গেই সিরিজ আয়োজন নিয়ে আলাপ করেছি। কারণ ওই দুটি সিরিজ এখনও স্থগিত হয়নি। তবে তাদের থেকে এখনও কোন সাড়া পাইনি।’

শ্রীলংকা দ্রুতই তাদের দেশ থেকে পরিবহন চলাচলের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার কথা ভাবছে। তবে শ্রীলংকা সফরে যেতে হলে বাংলাদেশ এবং ভারতকে ভ্রমণের জন্য সরকারের ছাড়পত্র নিতে হবে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, সরকারের থেকে ভ্রমণের ছাড়পত্র না পাওয়া পর্যন্ত বোর্ডের কিছু করার নেই।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহীও জানিয়েছেন একই কথা, ‘আমাদের শ্রীলংকা বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমাদের দেশে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আছে। এছাড়া দুই দেশের কোয়ারেন্টাইন নীতি মানতে হবে। সিরিজ আয়োজনে এ বিষয় দুটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। ক্রিকেটাররা খেলার জন্য কতটা প্রস্তুত সেটাও দেখতে হবে।’

সূচি অনুযায়ী, জুনের শেষে তিন ওয়ানডে এবং তিন ম্যাচের টি-২০ খেলার জন্য শ্রীলংকা সফরে যাওয়ার কথা আছে ভারতের ক্রিকেট দলের। এরপর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের তিন ম্যাচের সিরিজ খেলতে শ্রীলংকা যাওয়ার কথা বাংলাদেশ দলের। শ্রীলংকা এরই মধ্যে ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ বাতিল করেছে। তবে ইংলিশদের বিপক্ষে আগামী বছরের জানুয়ারিতে সিরিজটি হতে পারে।

সূত্রঃ সমকাল