সংসার ও প্রেমের কবিতা

এ কে সরকার শাওন , কবিঃ

সাধের সংসার

ভুল ভ্রমর, ভুল প্রজাপতি
গুটিকয়েক মন্ত্রবলে সিদ্ধ জুটি;
মানসাঙ্কে শূন্য হলেও
সামাজিকতায় চলনসই পরিপাটি!
অন্তঃপুরে একান্তে নিত্য বাদানুবাদ,
রিপুর তাড়নায় ক্ষণস্থায়ী মাতামাতি!

সহাস্য বদনে টাঙ্গানো যুগল ছবি,
একই ছাদের নিচে জীবন পার!
নিরবে হজম করা শত অত্যাচার,
এর নাম সাধের সোনার সংসার!

সংসারে সুখ-শান্তি চুলোয় যাক,
সংসারটা টেকসই হওয়া জরুরি!
সারাদিন দক্ষ পাকা অভিনয়
আর মেকি হাসির ছড়াছড়ি!
বিশ্ব জানুক আমরা দারুণ জুড়ি
অবসরে চলুক নিত্য মারামারি!

*******************

তুমি আমারই

কিছু না পারি,
মনে তো করতে পারি অহরহ
আগেরই মত ভালোবেসে!
আপন আঙিনায় বসে
একাকী হেসে হেসে!

বর্ষায় ভেসে, ফাগুনে হেসে
হৃদয়ের গভীর ক্ষতে;
তরতাজা স্মৃতিকণাগুলো
নয়ন সম্মুখে ভাসিয়ে স্রোতে,
সকাল সাঝে মাঝ রাতে
টলটলে নির্ঘুম নয়নপাতে;
স্মরণের কাজল স্রোতে,
স্মরিতে তো পারি রাত বিরাতে,
নিভু নিভু কোমল মোমের বাতিতে!

কিছু না পারি,
ভালোবাসতে তো পারি,
মেরু থেকে মেরু কিংবা
বিশ্বের পরিধি রেখার মত সুদীর্ঘ
সাথে নিয়ে হৃদয়ের শ্রেষ্ঠ অর্ঘ্য!
সেখানে তো বাঁধ সাধতে পারবে না
কোন রাজাধিরাজ কিংবা দুর্ভাগ্য!

কিছু না পারি শরীরের
সমস্ত শক্তি দিয়ে গলা ফাটিয়ে,
একটি গগনবিদারী চিৎকার,
কিংবা বুক বিদীর্ণকারী আর্তনাদ
তো করতে পারি!
নির্জন পাহাড়ের শীর্ষে দাঁড়িয়ে,
বেলাভূমিতে গড়াগড়ি খেয়ে
বুকের জ্বালা তো জুড়াতে পারি!

খড়িমাটি দিয়ে ব্লাকবোর্ডে,
কিংবা বালুচরে ছবি এঁকে,
নিরবে সজল চোখে,
কথপোকথন তো করতে পারি!
মনের মাঝে অবয়ব এঁকে
বছরের পর বছর জড়িয়ে ধরে
জীবন তো পার করতে পারি!

ফুলের বুকে চাঁদের মুখে
তোমার মায়াবী প্রতিচ্ছবির
অসংখ্য কল্পিত ছবি এঁকে
আনন্দে আত্মহারা তো হতে পারি!
সবশেষে বলতে তো পারি,
তুমি আমারই! তুমি আমারই!!