একমাত্র আক্রান্ত ব্যক্তি সুস্থ, খাগড়াছড়ি এখন করোনামুক্ত

অনলাইন ডেস্কঃ
খাগড়াছড়িতে একমাত্র করোনা আক্রান্ত যুবক এরশাদ চাকমার (৩৫) শরীরে তৃতীয় দফায়ও করোনা শনাক্ত হয়নি। তৃতীয় দফায় ফলাফল নেগেটিভ আসার মধ্য দিয়ে নারায়ণগঞ্জফেরত এ পোশাক শ্রমিক করোনামুক্ত হলেন। সেই সঙ্গে করোনামুক্ত (এখন পর্যন্ত) হলো খাগড়াছড়ি জেলা।

শুক্রবার (৮ মে) রাত ১০টার দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন খাগড়াছড়ির সিভিল সার্জন ডাক্তার নূপুর কান্তি দাশ।

দীঘিনালা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. তনয় তালকুদার জানান, ‘করোনা আক্রান্ত এরশাদ গত ১৮ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে দীঘিনালায় আসেন। এরপর থেকে তাকে কামুক্যাছড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়। ২২ এপ্রিল নমুনা সংগ্রহ করা হলে তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়। এরপর থেকে স্ত্রীসহ এরশাদ চাকমাকে দীঘিনালার হোটেল ইউনিটে আইসোলেশনে রাখা হয়।

তার শারীরে করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গ না থাকলেও প্রথমে পজেটিভ রিপোর্ট আসে। পরে দ্বিতীয় দফায় স্বামী-স্ত্রী দুজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ওই রিপোর্টে দুজনেরই করোনা নেগেটিভ আসে। এ ছাড়া তার সংস্পর্শে আসা আরও ১৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হলে তাদের সবারই রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।

খাগড়াছড়ির সিভিল সার্জন ডাক্তার নূপুর কান্তি দাশ জানান, ৮ মে পর্যন্ত খাগড়াছড়িতে একজনের করোনা পজেটিভ ছিল। যেহেতু তার দ্বিতীয় ও তৃতীয় নমুনার ফলাফল নেগেটিভ এসছে সেহেতু এখন তিনি করোনামুক্ত। খাগড়াছড়িতে আর কোনো করোনা পজেটিভ নেই।

এর আগে দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের ৫২তম দিনে খাগড়াছড়িতে দীঘিনালার এরশাদ চাকমা প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন। তৃতীয় দফার পরীক্ষায় এরশাদ চাকমার করোনা নেগেটিভ আসায় স্বস্তি প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা।

সূত্রঃ জাগোনিউজ