রামুতে প্রথম করোনায় মৃত নারী কক্সবাজার জেলাতেও প্রথম

খালেদ শহীদ, রামুঃ
কক্সবাজারের রামুতে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ৬৫ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এই প্রথম কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগীর মৃত্যু হলো। কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁর মৃত্যু হয়। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবসিক মেডিকেল অফিসার ডা. শাহিন আবদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বৃহস্পতিবার (৩০ এপ্রিল) রামুতে নতুন করে আরও দুইজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। ওই দু’জনের মধ্যে রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড পূর্ব কাউয়ারখোপ এলাকার বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য মোহাম্মদ আবদুল্লাহ’র স্ত্রী ছেনুয়ারা বেগম করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা যান। অপরজন জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সওদাগর পাড়ার বাসিন্দা মৌলভী শুক্কুরের ছেলে টেকনাফে বেসরকারি সংস্থায় কর্মরত পশু চিকিৎসক সাজ্জাদ হোসেন (৩৫)। তিনিও বৃহস্পতিবার নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত বলে শনাক্ত হন।

এর আগে গত ২৬ এপ্রিল রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের গাছুয়াপাড়া এলাকার একজন শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ফলে রামু উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩ জনে। তাদের মধ্যে একজন নারী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মারা যান। অপর দু’জনই পুরুষ। চিকিৎসা নিতে যাওয়ার সময়ে বৃহস্পতিবার নতুন করে সনাক্ত দু’জনের কারও শরীরিরে করোনা উপসর্গ দেখা যায়নি বলে জানায়, আক্রান্ত ব্যক্তিদ্বয়ের পরিবারের সদস্যরা।

রামু উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়য়া আমাদের রামু ডটকম কে জানান, নতুন আক্রান্ত দুইজনই শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নেন বলে জেনেছি। তাদের শরীরে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে নমুনা সংগ্রহ করে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে তাদের শরীরে করোনা শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

করোনা রোগী নারীর মৃত্যুর বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা আমাদের রামু ডটকম কে জানান, করোনা রোগী দাফন কমিটির বিশেষ ব্যবস্থাপনায় ওই নারীর দাফন সম্পন্ন করা হবে। নতুন করে দুজনের করোনা ভাইরাস পজিটিভ সনাক্ত হওয়ার পর পরই উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে, আক্রান্ত ওই ব্যক্তিদ্বয় ও তাদের পার্শ্ববর্তী ৮টি বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।