প্রতিবন্ধীদের পাশে রামুর কিছু মানবিক মানুষ ; ৫০ জন প্রতিবন্ধীকে ত্রাণ সহায়তা

আল মাহমুদ ভূট্টোঃ
মানবিক দায়বদ্ধতা থেকে রামুর প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন কিছু মানবিক মানুষ। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। যখন গৃহবন্দী হয়ে অনাহারে, অর্ধাহারে দিনাতিপাত করতেছে। ঠিক তখনই রামুর কিছু মানবিক মানুষ উপজেলার এগার ইউনিয়নের অর্ধশত প্রতিবন্ধীর হাতে তুলে দিলেন ত্রাণ সামগ্রী ও নগদ অর্থ। ‘মানুষ মানুষের জন্য’ এ প্রতিপাদ্যে রবিবার (৫ এপ্রিল) রামু সরকারি কলেজ মাঠে মানবিক সহায়তা হিসেবে প্রতিজন প্রতিবন্ধীকে ৫ কেজি চাল, ১ কেজি ডাল, ২ কেজি আলু, ১ কেজি পেঁয়াজ, ১ কেজি লবণ, ১ লিটার সয়াবিন তেল ও ২ টি সাবান এবং নগদ ১ শত টাকা যাতায়াত খরচ হিসেবে দেয়া হয়।

এসময় মানবিক সহায়তা কর্মসূচীর উদ্যোক্তারা বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সমাজের সকল শ্রেণীর মানুষ অসহায় হয়ে পড়েছে। ঘরবন্দী হয়ে দিনাতিপাত করতেছে। ঠিক তখনই এই মানবিক মানুষগুলো চিন্তা করল, অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে হবে। সিদ্ধান্ত মোতাবেক ইসলামিক ফাউন্ডেশনের রামু অফিসের সহায়তায় উপজেলার এগার ইউনিয়ন থেকে প্রথম পর্যায়ে ৫০ জন প্রতিবন্ধীকে এ সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। পর্যায়ক্রমে বাদ পড়া প্রতিবন্ধীদের সহায়তা দেয়া হবে।

প্রতিবন্ধীর পাশে দাঁড়ানো মানবিক মানুষগুলো হলো- রামু সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আবদুল হক, নাইক্ষ্যংছড়ি সরকারি এম এ কালাম ডিগ্রী কলেজের অধ্যাপক নিলোৎপল বড়ুয়া, ব্যবসায়ী ও সাবেক ইউপি সদস্য আওরঙ্গজেব টিপু, ব্যবসায়ী সাইফুল ইসলাম ( হাজী অটো রাইচ মিল, চৌমুহনী) , রামু সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অধ্যাপক মো. ইজত উল্লাহ, প্রভাষক মিজানুর রহমান, প্রভাষক দিবস বৈদ্য, প্রভাষক মোবারক হোসেন, সংগীত শিল্পী রেজাউল আমিন মোর্শেদ ও চাকরীজিবি আবু হানিফ মো. রোবাইদ।