করোনায় আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন (৫৫)। তার করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে বলে শুক্রবার (২৭ মার্চ) এক ভিডিও বার্তায় তিনি নিজেই জানিয়েছেন। সেজন্য স্বেচ্ছা-আইসোলেশনে গেছেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী।

রধানমন্ত্রীর ভিডিও বার্তার পর তার কার্যালয় ডাউনিং স্ট্রিটের বরাত দিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, ৫৫ বছর বয়সী বরিসের মধ্যে সামান্য উপসর্গ দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসই শনাক্ত হলো।

ডাউনিং স্ট্রিটের এক মুখপাত্র জানান, গতকালই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে সামান্য উপসর্গ লক্ষ্য করা যাচ্ছিল। পরে চিফ মেডিকেল অফিসার প্রফেসর ক্রিস হুইটির পরামর্শে পরীক্ষা করা হলে ফল পজিটিভ আসে। এরপর চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুসারে প্রধানমন্ত্রী ডাউনিং স্ট্রিটের একটি কক্ষে স্বেচ্ছা-আইসোলেশনে চলে গেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় আরও জানায়, বরিস জনসন আইসোলেশন থেকেই করোনার বিরুদ্ধে দেশের লড়াইয়ের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

এর আগে অবশ্য ডাউনিং স্ট্রিট জানিয়েছিল, প্রধানমন্ত্রী বরিস কোনো কারণে দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমিনিক রাব তার কাজ চালিয়ে যাবেন।

বরিসের আগে ব্রিটেনের হাইপ্রোফাইলড নেতাদের মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৭১ বছর বয়সী প্রিন্স চার্লস (সিংহাসনের পরবর্তী উত্তরসূরি)। তাকেও এখন আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

বিশ্ব প্রথম কোনো প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বরিস করোনায় আক্রান্ত হলেন। এর আগে স্ত্রী সোফি করোনায় আক্রান্ত হলে স্বেচ্ছা-আইসোলেশনে যান কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। আর করোনায় আক্রান্ত এক চিকিৎসকের সঙ্গে সাক্ষাতের পর আইসোলেশনে যান জার্মানি চ্যান্সেলর আঙ্গেলা মেরকেল।

গোটা বিশ্ব এখন করোনাভাইরাসের আক্রমণে কাঁপছে। সবশেষ হিসাবে, করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ। মারা গেছেন ২৪ হাজারেরও বেশি মানুষ।

ব্রিটেনে এখন পর্যন্ত ১১ হাজার ৬৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ৫৭৮ জন।

সূত্রঃ জাগোনিউজ