বাইশারীতে পুত্র বধূর মামলায় শাশুড় এখন জেল হাজতে

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারীতে পুত্র বধূর নারী নির্যাতন মামলায় শাশুড় আলী চান এখন কক্সবাজার জেলা হাজতে। ঘটনাটি ঘটেছে গত রবিবার কক্সবাজার আদালতে। মামলার বাদি কক্সবাজার জেলার ঈদগাঁও এলাকার বাসিন্দা পুত্র বধূ জোবাইদা ইয়াছমিন জানান, গত ১৫ই মার্চ ২০১৬ই দীর্ঘদিনের প্রেমের অবসান ঘটিয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের আলীচানের পুত্র আবু ছৈয়দের সাথে ইসলামী শরীয়াহ মোতাবেক বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের পর চট্টগ্রাম শহরে একটি ভাড়া বাসায় স্বামী-স্ত্রী হিসেবে বসবাস করে আসছিল।

দুই সপ্তাহ পর শাশুড় বাড়ির লোকজন কৌশলে স্বামী আবু ছৈয়দকে নিয়ে পালিয়ে যায়। ঐ সময় অসহায় স্ত্রী নিজ বাড়ীতে চলে আসে। অসহায় স্ত্রী এ নিয়ে বাইশারী তদন্ত কেন্দ্রে একখানা অভিযোগ দায়ের করার পর দফায় দফায় বৈঠক করেও শাশুড় বাড়ীর লোকজন স্ত্রীকে ঘরে তুলে নিতে নারাজ ছিল। কিন্তু ছেলে রাজি থাকলেও শাশুড় আলী চানের সহযোগী হিসেবে পরিচিত মোঃ সব্বির প্রকাশ নেতা সব্বিরের কারণে মানতে নারাজ ছিল বলে স্ত্রীর অভিযোগ।

অবশেষে পুত্রবধূ বাধ্য হয়ে কক্সবাজার জর্জ আদালতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে গত ৩০ শে জুন একখানা মামলা দায়ের করেন। উক্ত মামলায় হাজিরা দিতে গিয়ে গত রবিবার ২৪ শে জুলাই তিনজন জামিন পেলেও বিজ্ঞ আদালত শাশুড় আলী চানকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। বর্তমানে মামলার ১নং আসামী স্বামী আবু ছৈয়দ পলাতক রয়েছে।

অসহায় স্ত্রী জোবাইদা ইয়াছমিন সাংবাদিকদের জানান, সব্বির জামিন পেয়ে তাকে দেখে নেওয়া সহ মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে দিবেন বলে হুংকার অব্যাহত রেখেছে। তাই তিনি প্রশাসনের নিকট আলী চানের সহযোগী সব্বিরকে গ্রেপ্তারের দাবি জানান।