আইপিএল বাতিল করতে বলছে ভারত সরকার

ক্রীড়া ডেস্কঃ
চারদিকে করোনাভাইরাসের আতঙ্ক। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবারের আসর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে দুই সপ্তাহ। ১৫ এপ্রিলের পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত। তারপরও যেকোনো ভাবেই হোক টুর্নামেন্টটি আয়োজন করতে চায় কর্তৃপক্ষ। প্রয়োজনে দর্শকবিহীন স্টেডিয়ামে খেলা হবে।

কিন্তু আইপিএল কর্তারা চাইলে কি হবে? ভারতীয় সরকার চাইছে না এই মুহূর্তে এমন একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন হোক। আজ (বৃহস্পতিবার) তো সরকারের পক্ষ থেকে একপ্রকার পরোক্ষ নির্দেশনাই দেওয়া হলো আইপিএল বন্ধ করার।

করোনা পরিস্থিতি ধীরে ধীরে ভয়াবহ হচ্ছে ভারতেও। প্রাণঘাতী এ ভাইরাসে সেখানে এখন পর্যন্ত ১৯৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া মারা গেছেন অন্তত চারজন।

মহামারি করোনার বিস্তার ঠেকাতে ভারতে জনতা কারফিউ ঘোষণা করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যার দিকে করোনা নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জাতির উদ্দেশে এক ভাষণে কারফিউ জারির এ ঘোষণা দেন তিনি।

এর আগে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র নয়াদিল্লিতে গণমাধ্যমের সামনে আইপিএল বন্ধের আহ্বান জানান। এমইএ’র অতিরিক্ত সচিব এবং কোভিড-১৯ এর ভারতীয় সমন্বয়ক বলেন, ‘আয়োজকদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে তারা এটা চালিয়ে যাবে কিংবা বন্ধ করবে। আমাদের পরামর্শ হলো এই সময়ে এই টুর্নামেন্ট চালানোর দরকার নেই। তবে তারা যদি চালিয়ে যেতে চান, সেটা তাদের সিদ্ধান্ত।’

সূত্র: জাগোনিউজ