নাইক্ষ্যংছড়িতে বীর বাহাদুর ক্রীকেট টুর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন ১৯ ব্যাচ ক্রীকেট একাদশ

নিজস্ব প্রতিবেদক (হাফিজ) :
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি ছালেহ আহমদ সরকারি উচ্চবিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত বীর বাহাদুর ক্রীকেট টুর্ণামেন্টে গর্জনিয়া ক্রীকেট একাদশকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে নাইক্ষ্যংছড়ি ১৯ ব্যাচ ক্রীকেট একাদশ।

নাইক্ষ্যংছড়ি হাজি এম এ কালাম সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক মুমিনুল আলম মুমুর অক্লান্ত পরিশ্রমে বীর বাহাদুর ক্রীকেট টুর্ণামেন্টের সফল সমাপ্তি দেখতে শনিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) মাঠে ছিলো হাজারো দর্শক।

টুর্ণামেন্টের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অধ্যাপক মো. শফিউল্লাহ বলেছেন, খেলাধুলা যুব সমাজকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ থেকে দূরে রাখে। খেলাধুলা শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটায়। যুবসমাজ খেলাধুলার মাধ্যমে মাদক থেকে বিরত থাকতে পারে। খেলাধুলা জীবনকে সুন্দর ও পরিশীলিত করে। খেলোয়াড়দের মধ্যে সৃষ্টি হয় শৃংখলাবোধ, অধ্যবসায়, দায়িত্ববোধ ও কর্তব্যপরায়ণতা।

যুব সমাজকে মাদক ও সন্ত্রাস থেকে দূরে রাখার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে শফিউল্লাহ বলেন, খেলাধুলা যুব সমাজকে বিপথগামী হওয়া থেকে রক্ষা করে, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ থেকে দূরে রাখে। যুব সমাজকে যদি আমরা ক্রীড়ার সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে পারি, তাহলে সহজেই এ দেশ থেকে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূল করা যাবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান পৌরসভার মেয়র ইসলাম বেবির ছেলে সামির সাকির খান সিদ্দিকী, নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন, জেলা পরিষদ সদস্য ক্যানেওয়ান চাক, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মংহ্লাওয়াই মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইমরান, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আলী হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফাহিম ইকবাল খাইরু, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি বদুর উল্লাহ বিন্দু প্রমূখ।

খেলা শেষে ফয়সাল আজাদের নাইক্ষ্যংছড়ি ব্যাচ ক্রীকেট একাদশকে টুর্ণামেন্টের চ্যাম্পিয়ন ও সাংবাদিক হাফিজুল ইসলাম চৌধুরীর গর্জনিয়া ক্রীকেট একাদশকে রানার্স আপ ট্রপি বিতরণ করেন অতিথিবৃন্দ। রানার্স আপ ট্রপি গ্রহণকালে উপস্থিত ছিলেন গর্জনিয়ার বিশিষ্ট ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব শাহরান চৌধুরী মারুফ, সোহেল রানা, ওয়াহিদুল আলম চৌধুরী, ইকবাল হোসাইন স্বাধীনসহ অনেকে।