রামুর কচ্ছপিয়ায় যুবলীগ নেতা এম. সেলিমের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা নির্মাণঃ হাজারো জনতার অংশগ্রহণ

নীতিশ বড়ুয়াঃ
কক্সবাজারের রামু উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এম. সেলিমের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাশ্রমে মাটিকেটে দীর্ঘ এক কিলোমিটার রাস্তা মির্নাণ করেছে এলাকার হাজারো জনগণ। নিজেদের প্রয়োজনে নিজেরাই জমির মধ্যখানে সরুপথকে মাটি দিয়ে চলাচলের রাস্তা নির্মাণ করলো এলাকাবাসী। স্থানীয় জনগণকে সাথে নিয়ে যুবলীগ নেতৃবৃন্দের মহতী এ উদ্যোগকে যুবসমাজের জন্য অনন্য দৃষ্টান্ত বলে উল্লেখ করে স্বাগত জানিয়েছেন সচেতন মহল।

শনিবার (১১ জানুয়ারী) সকাল থেকে ইউনিয়ন যুবলীগ নেতৃবৃন্দ ও স্থানীয় জনগণ উপজেলার কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের শুকমনিয়া মসজিদ এলাকা থেকে পূর্বমুরা পর্যন্ত সড়কের ১ কিলোমিটার চলাচলের পথকে ৮ ফুট প্রস্থ করে মাটি দিয়ে নির্মাণ কাজ শুরু করে। যুবলীগ নেতৃবৃন্দের সাথে স্থানীয় হাজারো মানুষ মাটি কেটে রাস্তা নির্মাণ কাজে অংশ নিয়ে বিকালের দিয়ে প্রায় শেষ করে।

স্থানীয় ভুক্তভোগীরা জানায়, র্দীঘবছর ধরে ওই পথ দিয়ে চলাচলে চরম ভোগান্তী হতো। বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে যাওয়া-আসা অনকে কষ্ট হতো। ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এম. সেলিমসহ নেতৃবৃন্দ স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা রাস্তা নির্মাণ বিষয়ে এলাকাবাসীর সাথে আলাপ করলে এলাকাবাসী স্বতর্ষ্ফুত ভাবে সাড়া দেয়।

জমির মালিকদের মধ্যে আহম্মদ আলী মাষ্টার, ফরিদ আহমদ মেম্বার ও সালেহ আহমদ মেম্বার জানান, শুকমনিয়া থেকে পূর্বমুরা পর্যন্ত রাস্তাটি অত্যন্ত জনগুরুত্বপুর্ণ। যুবলীগ নেতা এম. সেলিমের নেতৃত্বে যুবসমাজ স্বেচ্ছায় রাস্তা নির্মাণের কথা জানালে আমরা রাস্তাটি প্রশস্ত করতে জমি ছেড়ে দিই। সে সাথে এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে শনিবার সকাল থেকে ৮ ফুট প্রস্থ করে দীর্ঘ এক কিলোমিটার রাস্তা মাটি দিয়ে নির্মাণ করি। তাঁরা রাস্তা পাকা করনে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমলের সুদৃষ্টি কামনা করছেন।

স্বেচ্ছাশ্রমে রাস্তা নির্মানের অন্যতম উদ্যোক্তা, কচ্ছপিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এম. সেলিম জানান, এলাকার সাধারণ মানুষের দুঃখ, দুর্দশার কথা চিন্তা করে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমলের অনুপ্রেরনা ও পরামর্শে স্থানীয় জামাল মেম্বার, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা সাংবাদিক হাবিবুর রহমান সোহেল, জসিম, বাবু, শহিদুল্লাহসহ হাজারো এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে আমরা স্বেচ্ছাশ্রমে মাটিকেটে রাস্তা নির্মাণ করি। আমাদেরকে মাননীয় সাংসদ, গরীববন্ধু আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল কথা দিয়েছেন দ্রুত সময়ের মধ্যে রাস্তাটি এইচবিবি দ্বারা উন্নয়ন করে দিবেন।