কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নয়ন সম্পাদক মিজান

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ
কক্সবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শাহাদত হোসেন রিপন ও সাধারণ সম্পাদক ফাহিমুর রহমানের পদ স্থগিত করে দলীয় পদ-পদবি ব্যবহারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি।

সংগঠনের শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল গত ১৮ ডিসেম্বর এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছিলেন।

কেন্দ্রীয় সংসদের ভারপ্রাপ্ত দফতর সম্পাদক মো. আবদুস সাত্তার পাটোয়ারি স্বাক্ষরিত সেই পত্রে উল্লেখ করা হয়েছিল, দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার কারণে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় গঠনতন্ত্র মোতাবেক কেন চূড়ান্ত শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে না, তা দলীয় কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে লিখিতভাবে জানাতে ১৯ ডিসেম্বর থেকে ২৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময় বেধে দেয়া হয়।

সেই নোটিশের সময়সীমা পেরিয়ে ৩ দিনের মাথায় জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে জেলা কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইফুর রহমান নয়ন ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ১ম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মিজানুল আলমকে দায়িত্ব দিয়ে আরেকটি পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল।

রোববার (২৯ ডিসেম্বর) কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-দফতর সম্পাদক আজিজুল হক সোহেল স্বাক্ষরিত পত্রে বলা হয়েছে, জেলা কমিটির সভাপতি-সম্পাদকের পদ স্থগিত থাকায় সংগঠনের কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে কেন্দ্রীয় সভাপতি-সম্পাদক এ সিদ্ধান্ত অনুমোদন দিয়েছেন। ২৯ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হয়ে পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত তা বলবত থাকবে।

তবে, জেলা সভাপতি-সম্পাদক কী অপকর্ম করেছে এবং তারা নোটিশের কী জবাব দিয়েছে তা নির্দেশনায় জানানো হয়নি। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলে কেন্দ্রীয় দফতর সেল পত্রটি দলের ভেরিফাইট পেজে রোববার (২৯ ডিসেম্বর) প্রচার করেন।