আমাদের সতর্ক থাকতে হবে : সৈয়দ আশরাফ

নিজস্ব প্রতিবেদক :
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, ‘আমি কোনো রাজনৈতিক বক্তব্য দেব না। যা বলব ইশারা-ইঙ্গিতে বুঝে নেবেন। স্বাধীনতার পর স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধুকে আমরা রক্ষা করতে পারিনি। দ্বিতীয়বার যাতে ওই ধরনের ঘটনা ঘটতে না পারে, সে জন্য আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।’ খবর রাইজিংবিডির।

মঙ্গলবার রাজধানীর কাকরাইলে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, স্বাধীনতার পরপর স্বাধীনতার স্থপতিকে পরিবার-পরিজনসহ হত্যা করার ঘটনা পৃথিবীর ইতিহাসে নেই। বাঙালি যেমন বীরের জাতি, তেমনি বেঈমানের জাতি। তাই আমাদের সজাগ থাকার প্রয়োজন আছে। মনে মনে প্রস্তুতি রাখারও প্রয়োজন আছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, এ বছর থেকেই মুক্তিযোদ্ধাদের ভাতা ১০ হাজার টাকা করা হয়েছে। এ বছর থেকেই মুক্তিযোদ্ধারা দুটি উৎসব বোনাস পাবেন, যার পরিমাণ ২০ হাজার টাকা।

এ সময় তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সোমবারই এ বিষয়ে অনুমোদ দিয়েছেন বলেও জানান।

আ ক ম মোজাম্মেল হক আরো বলেন, শিগগিরই মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা যাচাই-বাছাই করে সবাইকে চূড়ান্ত সনদ ও পরিচয়পত্র দেওয়া হবে। পাশাপাশি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকাও যাচাই-বাছাই করা হবে।

অনুষ্ঠানে নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদবিরোধী যে জাতীয় ঐক্য গড়ে উঠেছে, মুক্তিযোদ্ধারা সেটাকে আরো সুদৃঢ় করবে। জাতীয় কনভেনশন করে সব শ্রেণিপেশার মানুষকে নিয়ে এ ঐক্যকে সামনে এগিয়ে নেওয়া হবে।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল এ সভার আয়োজন করে। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের চেয়ারম্যান হেলাল মোর্শেদ খান। সভা শেষে মিছিলসহ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের শিখা চিরন্তনে গিয়ে শপথ নেন মুক্তিযোদ্ধারা।