চোখ ক্লান্ত দেখানোর কারণ

লাইফস্টাইল ডেস্কঃ
অ্যালার্জি, খাদ্যাভ্যাস ইত্যাদি কারণে পর্যাপ্ত ঘুমানোর পরেও চোখে থাকতে পারে ক্লান্তির ছাপ।

রাতে আট থেকে নয় ঘণ্টা ঘুমানোর পরও অনেকসময় সকালে চোখ ফুলে থাকে, ক্লান্ত দেখায়। আশপাশের মানুষ প্রশ্ন করে, রাতে ঘুম ভালো হয়নি নাকি? চোখের নিচে কালি পড়া কিংবা চোখের পাতা ঢলে পড়াটা খুবই স্বাভাবিক ঘটনা যদি আপনি মানসিক চাপে থাকেন এবং রাতে নির্ভেজাল ঘুম না হয়।

তবে এই বিষয়গুলো না থাকলেও কয়েকদিন পরপরেই যদি এমন সমস্যা দেখা দেয় তবে সেখানেই দেখা দেয় বিপত্তি।

স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন থেকে জানানো হল বিস্তারিত।

অ্যালার্জি: চোখ ফোলা ও ক্লান্ত দেখানোর একটি কারণ হল অ্যালার্জির সংক্রমণ। রেণু, পশুর লোম ইত্যাদি ক্ষুদ্র জিনিষ চোখের ভেতরে ঢুকে পড়লে তার থেকে সুরক্ষা দিতে শরীরে তৈরি হয় ‘হিস্টামিন’ নামক উপাদান। এই উপাদান চোখের নিচের অংশে থাকা রক্তনালীগুলোকে ফুলিয়ে দেয়, বাড়িয়ে দেয় সেখানে রক্তপ্রবাহ। আর একারণেই চোখ ফোলা মনে হয়।

পানিশূন্যতা: শরীরে পানির অভাব থাকলে চোখ ক্লান্ত দেখায় এবং ফুলে ওঠে। এর কারণ হল চোখের চারপাশের ত্বক অত্যন্ত স্পর্শকাতর আর পানিশূন্যতা সেই ত্বকে ক্লান্তির ছাপ ফেলে। তাই সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানোর পরও পর্যাপ্ত পানি পান করতে হবে, অন্যথায় চোখ দেখাবে ক্লান্ত।

লবণ বেশি খাওয়া: লবণ বেশি খেলে শরীর পানি সঞ্চয় করে রাখে বেশি, বিশেষ করে, চোখের চারপাশে। চোখের চারপাশের অত্যন্ত পাতলা ত্বকের নিচে সঞ্চিত এই পানি ত্বককে প্রসারিত করে রাখে এবং চোখে ক্লান্তিভাব ফুটিয়ে তোলে। এর থেকে পরিত্রাণের উপায় হল লবণ খাওয়া কমানো আর পানি পানের মাত্রা বাড়ানো।

অতিরিক্ত চা-কফি: সকালে কড়া এক কাপ চা কিংবা কফি অবশ্যই জরুরি। তবে সারাদিনে চা-কফির মাত্রা যদি চার থেকে পাঁচ কাপে গিয়ে পৌঁছায় তবে পরেরদিন চোখ ফুলে থাকতে পারে। চা-কফিতে থাকে ‘ক্যাফেইন’ যা অতিরিক্ত গ্রহণ করা হলে পানিশূন্যতা তৈরি হয় এবং ক্লান্ত দেখায়। চা-কফি বেশি খাওয়ার অভ্যাস থাকলে ‘গ্রিন টি’ পান করার অভ্যাস করতে হবে। এতে প্রচুর ‘অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট’ থাকে যা ত্বককে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করে।

চোখের উপর ধকল: দূরের কিংবা কাছের কোনো কিছু পরিষ্কারভাবে দেখতে চোখ কুঁচকে তাকানো এই অঙ্গটির উপর প্রচুর চাপ ফেলে। চোখ কুঁচকে তাকানোর সময় চোখের রক্তনালী প্রসারিত হয়, যা ঘন ঘন করতে হলে চোখেল নিচে কালি পড়ে এবং ফোলাভাব দেখা দেয়। এজন্য যেকোনো বৈদ্যুতিক পর্দার দিকে টানা ২০ মিনিট তাকিয়ে থাকার পর বিরতি নিতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ মতো চশমা ব্যবহার করতে হবে

সূত্রঃ বিডিনিউজ