অবশেষে মৃত দাবি করা জিকু সহযোগিসহ আটক, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

এম.এ আজিজ রাসেল:
বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত ‘গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মৃতদেহ উদ্ধার’ হওয়ার দাবি করে সংবাদ প্রকাশ করা ব্যক্তি জাহিদ হোসেন জিকুকে অবশেষে অস্ত্র ও গুলিসহ আটক করেছে র‌্যাব। এসময় আটক হয়েছে মোহাম্মদ কায়েস নামের এক সহযোগিও। উদ্ধার করা হয়েছে ৫ টি দেশীয় তৈরী বন্দুক ও ১৩ রাউন্ড কার্তুজ।

শনিবার ভোরে কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদে এ অভিযান চালানো হয়।

আটকরা হলেন, সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মনজুর আলমের ছেলে জাহিদ হোসেন জিকু (৩২) ও একই এলাকার মো. আলম সিকদারের ছেলে মোহাম্মদ কায়েস (৩০)। র‌্যাব-৭ কক্সবাজার ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার এএসপি মো. শরাফত ইসলাম জানান, কেনা-বেচার জন্য অস্ত্র মজুদের খবর পেয়ে র‌্যাবের একটি দল অভিযান চালায়। অভিযানে জাহিদ হোসেন জিকুর বাড়ী তল্লাশী চালিয়ে ৫ টি দেশীয় তৈরী বন্দুক ও ১৩ রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় জাহিদ হোসেন জিকু ও তার সহযুগী কায়েসকে আটক করা হয়। আটকদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দায়ের করে কক্সবাজার সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

কক্সবাজার সদর থানার ওসি আসলাম হোসেন আমাদের রামু ডটকমকে জানান, অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করে আটক ২ জনকে অস্ত্র ও গুলিসহ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। আটক জাহিদ হোসেন জিকুর বিরুদ্ধে অস্ত্র, ডাকাতি, হত্যা ও জমি দখলসহ বিভিন্ন অভিযোগে কক্সবাজার সদর থানায় ৪টির বেশি মামলা রয়েছে।