রামু উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বনবিহারে কঠিনচীবর দানোৎসব ১১ নভেম্বর

নীতিশ বড়ুয়া, রামুঃ
প্রয়াত ভদন্ত প্রজ্ঞামিত্র মহাথের’র স্মৃতিধন্য রামু উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বনবিহারে দানোত্তম শুভ কঠিনচীবর দানোৎসব ১১ নভেম্বর, সোমবার। এ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে সমাপ্ত হচ্ছে চলতি বছরের দানশ্রেষ্ঠ শুভ কঠিন চীবর দানোৎসবের।

এতে সভাপতিত্ব করবেন চট্টগ্রামের চন্দনাইশ বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত শীল রক্ষিত মহাথের। প্রধান ধর্মদেশক থাকবেন চট্টগ্রামের চন্দনাইশ সুচিয়া বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ ভদন্ত অতুলানন্দ মহাথের।

মহতী এ দানোৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন, কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি।

দানোৎসবে দিনব্যাপী কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে সোমবার ভোরে বিশ্বশান্তি কামনায় পবিত্র ত্রিপিটক থেকে সুত্রপাঠ, বুদ্ধপুজা, সকালে ভিক্ষুসংঘের প্রাতঃরাশ, জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, সংঘদান, অষ্টপরিস্কারদান, ধর্মসভা, অতিথি ভোজন, বিকালে কঠিনচীবর ও কল্পতরু সহকারে গ্রাম প্রদক্ষিন, দানোত্তম কঠিন চীবর দানসভা, চীবর পরিক্রমা, কঠিন চীবর ও কল্পতরু উৎসর্গ ও রামু কেন্দ্রীয় সীমা মহাবিহারের অধ্যক্ষ, পুজনীয় উপ-সংঘরাজ, একুশে পদকে ভুষিত, প্রয়াত পন্ডিত সত্যপ্রিয় মহাথের ও উত্তর মিঠাছড়ি প্রজ্ঞামিত্র বন বিহারের অধ্যক্ষ প্রয়াত প্রজ্ঞামিত্র মহাথের মহোদয়ের নির্বাণসুখ কামনাসহ বিশ্বশান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা।

প্রজ্ঞামিত্র বন বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি, বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত সারমিত্র মহাথের ও সাধারণ সম্পাদক টিটু বড়ুয়া জানান, কঠিন চীবর দানোৎসবের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। বৈরী আবহাওয়া হলেও কঠিনচীবর দান অনুষ্ঠানকে ঘিরে গ্রামের মানুষের মাঝে উৎসবের আমেজ সৃস্টি হয়েছে। বিহার প্রাঙ্গনকে সাঁজানো হয়েছে বর্ণিল সাঁজে। অনুষ্ঠানে শতাধিক বৌদ্ধ ভিক্ষু -শ্রামণ অংশ গ্রহন করবেন। এতে আয়োজকরা জাতি, ধর্ম,বর্ণ নির্বিশেষে সকলকে পুণ্যানুষ্ঠানে নিমন্ত্রণ জানিয়েছেন।