তুমি ভূমিকন্যা শেখ হাসিনা

মুহাম্মদ সামাদঃ
আমাদের স্বপ্নগর্ভা গ্রাম টুঙ্গিপাড়ায়
তোমার জন্ম। জন্মগ্রামের প্রতিটি
ধুলিকণা কাদামাটি গায়ে মেখে
বাইগার নদীতে সাঁতার কেটে
বৃষ্টিজলে হেঁটে হেঁটে
রাজপথে সংগ্রামে মুক্তির মিছিলে মিশে
আশৈশব তুমি আছো মানুষের পাশে;
এই বাংলা তোমাকে ভালোবাসে।

আবহমান বাংলার শ্যামল রমণী তুমি–
পাখিরা তোমাকে দেখে ঘুম জাগানিয়া গানে
মুখরিত করে আকাশ বাতাস;
মাছেরা তোমার ডাকে আনন্দে লাফিয়ে ওঠে;
তোমার শাড়িতে লেগে থাকে
শস্যের সুষমা– ধান দূর্বা তিল তিসি…
তোমার সর্বাঙ্গ জুড়ে বাংলার ষড়ঋতু:
গ্রীষ্মে– দাবদাহে ছায়াময় বটবৃক্ষ তুমি;
বরষার জলে নৌকার রঙিন পালে
নদীতীরে শরতের শুভ্র কাশফুলে
হেমন্তের সোনাঝরা পাকাধানে
শীতের কুয়াশাভেজা মিঠে রোদে
বসন্তের কচি নতুন পাতায়
বাংলাদেশ তোমাকেই খুঁজে পায়।

ঘাতকের রক্তচক্ষু মৃত্যুভয় তুচ্ছ করে
স্বজনের রক্তেভেজা এই বাংলায়
বুকে কষ্টের পাথর চেপে
চোখে অশ্রুর সমুদ্র নিয়ে
ক্লান্তিহীন তুমি ছুটে যাও গ্রাম থেকে গ্রামে
শহরের পোড়া বিধ্বস্ত বস্তিতে;
মায়ের মমতা দিয়ে বুকে নাও দুখিনীরে।

মুজিব-অভয়পুষ্ট তোমার প্রশান্ত
আঁচলের ছায়া প্রতিদিন দীর্ঘতর হয়ে
সমতলভূমি আর লামার পাহাড় ছুঁয়ে
ছড়িয়ে পড়ছে জাপানের ফুকুশিমা থেকে
সোমালিয়া-সুদানের খরাপীড়িত শিশুর মুখে।

জাতিসংঘে, অগণিত বিশ্বসভায়
তোমার সাহস আর শৌর্যের প্রভায়
সাম্য শান্তি মুক্তির আকাঙ্ক্ষায়
এশিয়া-আফ্রিকা ল্যাটিন আমেরিকায়
সংগ্রামরত মানুষেরা জেগে ওঠে।

শেখ হাসিনা, জনগণমননন্দিত নেত্রী
আমাদের শাশ্বত ফিনিক্স পাখি তুমি
অগ্নিস্নানে শুচি হয়ে বারবার আসো
তুমি ভূমিকন্যা– তুমি প্রিয় মাতৃভূমি।