গর্জনিয়ার সাইবার ক্রিমিনাল সরওয়ারের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তি আইনে মামলা দায়ের

 স্টাফ রিপোর্টার, আমাদের রামু ডটকম :

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরকার বিরুধি অপতৎপরতা, জাতীয় পতাকার অবমাননা ও জঙ্গিবাদের প্রচারের কারণে রামুর গর্জনিয়ার বড়বিল গ্রামের দুর্ধর্ষ সাইবার ক্রিমিনাল সরওয়ারের বিরুদ্ধে ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (সংশোধন) আইন, ২০১৩’-এর ৫৭ এর দুই ধারার অপরাধের দায়ে মামলা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার, ১২ জুন সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় বাইশারী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের প্রধান উপ-পরিদর্শক আনিছুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলাটি দায়ের করেন।

গত রোববার রাতে বাইশারী ইউনিয়নের এক কলেজপড়–য়া মেয়ের লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে নুরুল আবছারের ছেলে সমালোচিত সরওয়ার জাহান (৩০) কে আটক করে পুলিশ। পরে তাঁকে উপজেলা ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করলে আদালতের বিজ্ঞ বিচারক ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এএসএম শাহেদুল ইসলাম কর্তৃক ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি প্রদানের মাধ্যমে যৌন হয়রানির দায়ে সরওয়ার জাহান তার স্বীকারোক্তি ও সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে বাংলাদেশ দন্ডবিধির ৫০৯ ধারায় ১ (এক) বছরের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত হয়।

index copy

নাইক্ষ্যংছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আবুল খায়ের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আমাদের রামু ডটকমকে বলেন, সরওয়ার বহু অপকর্মের হোতা। তাঁকে মঙ্গলবার বান্দরবান আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এএসএম শাহেদুল ইসলাম আমাদের রামু ডটকমকে বলেন, পাপ বাবকেও ছাড়ে না তার প্রমাণ এটা। এই দুধর্ষ সাইবার ক্রিমিনালকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে আরও অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ সরওয়ারদের কারনেই দেশে আজ অস্থিরতা বিরাজ করছে।

স্থানীয় সূত্র বলছে, সরোয়ার ফেসবুকে নানা অশ্লীল মন্তব্য ও সরকার বিরোধী অপতৎপরতা চালিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। তাঁকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা খুবই জরুরী। পাশাপাশি সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া প্রয়োজন।