চকরিয়া থেকে অপহৃত তিন যুবক রামুর ঈদগড় থেকে মুক্ত

এ.এম হোবাইব সজীব, চকরিয়া:
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজার থেকে কমান্ডো স্টাইলে অপহরণের একদিন পর মুক্তি পেলেন অপহৃত তিন যুবক। মুক্তিপণ নিয়ে পরদিন সোমবার রাত ১১ টায় তাদের ছেড়ে দিয়েছে অপহরণকারীরা চক্র।

তারা হলো- ডুলাহাজার ইউনিয়নের পাগলিরবিল ভিলেজার পাড়া এলাকার ছৈয়দ মিলুর ছেলে হেলাল উদ্দিন (২৬), কবির আহমদের ছেলে মোঃ জিয়াবুল (২৭) ও আনজাজুল হকের ছেলে জয়নাল উদ্দিন (২৬) । গত রবিবার রাতে তাদের অপহরণ করা হয়।

অপহরণের শিকার হেলাল উদ্দিন জানান, রবিবার রাত ১টার সময় তাদের গ্রাম ভিলেজার পাড়ার একটি দোকানে টেলিভিশনে ফুটবল খেলা দেখছিলেন। অতর্কিত অবস্থায় ১২-১৪ জন মুখোশ পরা অস্ত্রধারী দুর্বৃত্ত তাদের জিম্মি করে নিয়ে যায়। ওই তিন যুবককে কোথায় নিয়ে গিয়েছিল চোখ-মুখ বন্ধ করে রাখায় তারা আঁছ করতে পারেননি বলে জানিয়েছেন।

অপহরণের ঘটনা সত্যতা স্বীকার করেছেন ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন।

এঘটনায় ২ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ নিয়েছে বলে তাদের পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে। অপহরণ শিকার যুবকরা আরো জানান, তাদের গভীর জঙ্গলে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে গিয়ে উভয় হাত ও চোখ-মুখ বন্ধ করে রাখেন এবং বেদম মারধর করেন। তবে এ ঘটনায় এলাকার মানুষ জড়িত থাকতে পারেন বলে সন্ধেহ প্রকাশ করেন।

চকরিয়া থানার (ওসি) জহিরুল ইসলাম খান আমাদের রামু ডটকমকে বলেন, অপহরণের খবর পেয়ে আমরা উদ্ধার তৎপরতা চালাই। অবশেষে রামু উপজেলার ঈদগড় পাহাড়ি এলাকায় অভিযান চালালে অপহরণকারীরা সোমবার গভীর রাতে তিন যুবককে ভিন্ন পথে ছেড়ে দেয়। তবে ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।