রোহিঙ্গাদের ফেরার পরিবেশ মিয়ানমারকে তৈরি করতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্কঃ
পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রোহিঙ্গারা যাতে স্বেচ্ছায় ফিরে যেতে পারে, সে পরিবেশ মিয়ানমারকেই তৈরি করতে হবে। তিনি বলেছেন, রোহিঙ্গাদের আগে ফিরিয়ে নিতে হবে, সেখানে গিয়ে তারাই ঘরবাড়ি বানিয়ে নেবে। মিয়ানমারে আশ্রয়কেন্দ্র বানানোর নামে সময়ক্ষেপণ করা যাবে না।

বুধবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পিকেএসএফ ভবনে এক সেমিনারের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, রোহিঙ্গাদের জন্য কিছু বাড়িঘর মিয়ানমার সরকার তৈরি করেছে। সেখানে আসলে কী অবস্থা হয়েছে তা দেখাতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতসহ বিদেশি কূটনীতিকদের নিয়ে যাবে। আগে মিয়ানমার এ বিষয়ে রাজি ছিল না, এখন রাজি হয়েছে।

প্রত্যাবাসন শুরু করতে ব্যর্থতার জন্য বাংলাদেশকে দায়ী করে মিয়ানমার সরকারের বক্তব্য প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা এটা বলছে কারণ আমাদের দিক থেকে রোহিঙ্গারা যায়নি। আমরা কাউকে জোর করে ফেরত পাঠাব না, তারা স্বেচ্ছায় ফিরে যাবে। পরিবেশ তৈরি করার দায়িত্ব মিয়ানমারের। তিনি বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের বহু মানুষ ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল। সেখান থেকে ফেরার সময় আমরা চিন্তা করিনি ঘরবাড়ি আছে কি-না। পাকিস্তানি আর্মি আমাদের ঘরবাড়ি ভেঙে ফেলেছিল, আমরা এসে ঘরবাড়ি তৈরি করেছি। রোহিঙ্গারাও যখন আমাদের এখানে এলো, তারা কিন্তু ঘরবাড়ির কথা চিন্তা করেনি। পালিয়ে এসেছে। তারা গিয়ে সেখানে ঘরবাড়ি তৈরি করে নেবে, না গেলে কীভাবে হবে? তিনি আরও বলেন, রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিষয়ে এখনও কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

সূত্রঃ সমকাল