রামুতে স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী নিহত: মাতৃহারা হল ৩ কন্যা সন্তান

সোয়েব সাঈদ:
কক্সবাজারের রামুতে স্বামীর নির্যাতনে স্ত্রী নিহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।। নিহত গৃহবধু রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের চরপাড়া পাড়া এলাকার শামসুল আলমের মেয়ে রেহেনা আকতার (২৭)।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রভাষ চন্দ্র ধর গৃহবধুর মৃত্যুর বিষয়টি আমাদের রামু ডটকমকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, রবিবার, ১০ জুলাই স্বামীর নির্যাতনে প্রাণ হারান রেহেনা আকতার নামের ওই গৃহবধু।

রেহেনা আকতারের পিতা শামসুল আলম জানিয়েছেন, স্বামী সাইদুল ইসলাম রুবেল কারণে অকারণে তার মেয়েকে মারধর করতেন। রবিবার সকালে মেয়েকে মারধর করার সময় তিনি সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও পাড়া-প্রতিবেশীরা গিয়ে তাকে বারণ করেন। কিন্তু এরপরও নির্যাতন অব্যাহত থাকে। বিকাল সাড়ে পাঁচটায় নির্মম নির্যাতনে প্রাণ হারান রেহেনা আকতার।

জানা গেছে, ১০ বছর আগে রেহানা আকতারের সাথে রামু উপজেলার কাউয়ারখোপ ইউনিয়নের ফুলনিরচর এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর আহাম্মদের ছেলে সাইদুল ইসলাম রুবেলের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তারা কাউয়ারখোপের চরপাড়া এলাকায় বসবাস করে আসছিলেন। বর্তমানে তার সংসারে ৩ কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. আজিজ জানিয়েছেন, নির্যাতনের শিকার গৃহবধু রেহানা আকতারকে রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের লাশ ময়না তদন্ত করে আজ সোমবার, ১১ জুলাই বিকালে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) প্রভাষ চন্দ্র ধর জানিয়েছেন, এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।