রামুতে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত সর্দার জসীম নিহত

রামু প্রতিনিধি:
কক্সবাজারের রামুতে পুলিশের সঙ্গে ডাকাত দলের কথিত বন্দুকযুদ্ধে জসিম উদ্দিন খোকন (৩৫) নামের এক ডাকাত সর্দার নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার, ১১ জুলাই ভোরে রামু-নাইক্ষ্যংছড়ি সড়কের রাবার বাগান সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এসময় ডাকাতদের ব্যবহৃত একটি পাইপগান,১৩ রাউন্ড কাতুর্জ, ও দুটি রাম দা উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত ডাকাত সর্দার জসিমের বিরুদ্ধে ডাকাতি,চাঁদাবাজি,অস্ত্র মামলাসহ প্রায় ১৫টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। নিহত জসীম কক্সবাজার সদর উপজেলার পশ্চিম ভারুয়াখালী এলাকার মৃত অহিদুল আলমের ছেলে।

রামু থানা পুলিশ জানায়,রোববার দুপুরে রামু উপজেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের জেটি রাস্তার মাথা নামক স্থান থেকে ডাকাত সর্দার জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে জিজ্ঞাসাবাদে জসীম জানায়, রাবার বাগানের ভেতরে পাহাড়ী এলাকায় তাদের ব্যবহৃত ৭টি দেশীয় তৈরী পাইপগান,তিনটি চাপাতি ২টি ছুরি রয়েছে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক পুলিশ ভোর রাতে ওইস্থানে জসিমকে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধারে যায় ।

পুলিশের দাবি, পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালেই পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতেরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোঁড়ে। এ সময় পুলিশ ও পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে শতাধিক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। এসময় বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত সর্দার জসিম নিহত হন। এ সময় পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

রামু থানার ওসি প্রভাষ চন্দ্র ধর আমাদের রামু ডটকমকে জানান,নিহত ডাকাত সর্দার জসীম একজন দুর্ধর্ষ ডাকাত। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক চোরাচালান, ডাকাতি, চাঁদাবাজিসহ অন্তত ১৫টি মামলা রয়েছে।