বিহারে লিচু খেয়ে ৫০ শিশুর মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
বিষাক্ত লিচু খাওয়ার পর প্রাণঘাতী মস্তিষ্ক রোগে আক্রান্ত হয়ে ভারতে অন্তত ৫০ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। গত তিন সপ্তাহে দেশটির বিহার প্রদেশের মুজাফফরপুর জেলার দুটি হাসপাতালে এসব প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। খবর সিএনএনের।

বৃহস্পতিবার বিহার প্রদেশের স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্তৃপক্ষ জানায়, মৃত শিশুদের মস্তিষ্কে অ্যাকিউট এনসেফালিটিস সিনড্রোমের উপস্থিতি পাওয়া গেছে, যা মস্তিষ্কে প্রদাহের কারণ।

গত জানুয়ারি থেকে মুজাফফরপুর জেলার দুটি হাসপাতালে অ্যাকিউট এনসেফালিটিস সিনড্রোম নিয়ে অন্তত ১৭৯ জন ভর্তি হয়েছেন। তবে গত তিন সপ্তাহ জুড়ে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

২০১৩ সালে এই রোগে আক্রান্ত হয়ে উত্তর প্রদেশে ৩৫১ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

সঞ্জয় কুমার নামে এক স্থাস্থ্য কর্মকর্তা জানান, এবছর তাপমাত্রা অনেক বেড়েছে। বৃষ্টির দেখা নেই। অতিরিক্ত গরমে এই ধরনের রোগী এবছর বেশি।

উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশটি লিচু উৎপাদনের জন্য বিখ্যাত। ১৯৯৫ সালের পর থেকে মুজাফফরপুর এবং পার্শ্ববর্তী কয়েকটি জেলায় লিচুর মৌসুমে এ ধরনের প্রাণঘাতী রোগের বিস্তার ঘটে।

সঞ্জয় বলেন, আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞরা আমাদের জানিয়েছেন, লিচু খাওয়ার পর তাতে মেশানো বিষাক্ত দ্রব্য শিশুদের পেটে গিয়ে জমা হয়েছে। এরপর তাপমাত্রা বৃদ্ধির সঙ্গে বিষক্রিয়া হয়েছে। আমরা দেখেছি, যখন তাপমাত্রা কম থাকে বা বৃষ্টি হয় তখন এ ধরনের রোগী হাসপাতালে দেখা যায় না।

তিনি বলেন, এ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত শিশুদের অধিকাংশের রক্তে হঠাৎ করেই গ্লুকোজের পরিমাণ কমে যায়। এদের বেশিরভাগই গরিব ঘরের এবং অধিকাংশই অপুষ্টিতে ভুগছিল।

একই ধরনের অসুস্থতা নিয়ে আরও ৪০ শিশু হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি রয়েছে বলে জানান তিনি।

বাচ্চারা খালি পেটে যাতে না ঘুমা্য় তা খেয়াল রাখার জন্য বাবা-মাকে পরামর্শ দিয়েছেন প্রদেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

সূত্রঃ সমকাল