প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচরের পরই শাহরিয়ার স্বপদে

অনলাইন ডেস্কঃ
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টিগোচর হওয়ার পরই ভোক্তা অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলি আদেশ বাতিল করা হয়েছে।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপপরিচালক মঞ্জুর শাহরিয়ারকে গতকাল সোমবার বদলির আদেশ দিয়েছিল জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। তাঁর বদলির আদেশ হওয়ার পরই গতকাল রাতভর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হয়। এর মধ্যেই আজ মঙ্গলবার সকালে তাঁর বদলির আদেশ প্রত্যাহার করে নেয় সরকার।

প্রধানমন্ত্রী বিশেষ সহকারী বিপ্লব বড়ুয়া ফেসবুকে এক পোস্টে লেখেন, সরকারি চাকরিতে বদলি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়ার অংশ। ভোক্তা অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের ভেজাল ও ঈদ উপলক্ষে পণ্যসামগ্রীর মূল্যবৃদ্ধিবিরোধী অভিযান প্রশংসিত হয়েছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বদলিসংক্রান্ত বিষয়টি ব্যাপক আলোচনা হওয়ায় ফিনল্যান্ড সফররত প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার দৃষ্টিগোচর হয়। পরবর্তী সময়ে মঙ্গলবার সকালে যথাযথ কর্তৃপক্ষ মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলি আদেশ বাতিল করেছে।

এরপর প্রথম আলোর পক্ষ থেকে বিপ্লব বড়ুয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তিনি এ ব্যাপারে প্রথম আলোকে বলেন, বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টিগোচর হওয়ার পরই মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলি আদেশ বাতিল করা হয়।

সম্প্রতি ভোক্তা স্বার্থে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে অভিযান পরিচালনা করে আলোচনায় আসেন মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার। গতকাল আড়ংয়ে অভিযান চালান তিনি। দাম বেশি রাখায় জরিমানা ও আড়ংয়ের উত্তরা আউটলেট আট ঘণ্টা বন্ধ রাখা হয়।

অবশ্য জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন প্রথম আলোকে বলেন, গত ২৯ মে নিয়মমাফিক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ হয়ে। ২৯ মের পরেই শুক্র ও শনিবার ছুটি ছিল। ছুটির পর দপ্তর খোলা হলে পরে সেটি ৩ জুন প্রজ্ঞাপন আকারে প্রকাশ করা হয়। কিন্তু একই দিনে আড়ংয়ে এ ঘটনা ঘটে। সে কারণে জনমনে একটি বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। পাবলিক সেন্টিমেন্ট তৈরি হওয়ায় তাঁর বদলির আদেশ প্রত্যাহার করা হয়েছ। আজ সকালে তাঁর বদলির আদেশটি প্রত্যাহার করা হয়।

সূত্রঃ প্রথম আলো