গুলশান হত্যাকাণ্ড: ওবামা ও তিন প্রধানমন্ত্রীকে খালেদার বার্তা

ঢাকায় সংশ্লিষ্ট দূতাবাসের মাধ্যমে দেশগুলোর সরকার প্রধানদের কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন এই বার্তা পাঠান বলে তার উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন।

তিনি মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “গুলশানের এই ভয়ঙ্কর সন্ত্রাসী হামলায় ইতালি,  জাপান,  ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক নিহত হয়েছে। ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেও রেনজি, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে বিএনপি চেয়ারপারসন পৃথক পৃথক শোকবার্তা পাঠিয়ে এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা ও শোক প্রকাশ করে সহমর্মিতা প্রকাশ করেছেন।”

গত শুক্রবার রাতে গুলশান ২ নম্বরের ৭৯ নম্বর সড়কে গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে  একদল অস্ত্রধারী ঢুকে দেশি-বিদেশি অন্তত ৩৩ জন অতিথিকে জিম্মি করে। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর কমান্ডো অভিযানে ওই ক্যাফের নিয়ন্ত্রণ নেয় সশস্ত্র বাহিনী।

সেখান থেকে ১৩ জন জিম্মিকে জীবিত উদ্ধারের পাশাপাশি ২০ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়, যাদের ১৭ জনই বিদেশি।

নিহতদের মধ্যে নয়জন ইতালির, সাতজন জাপানের ও একজন ভারতের নাগরিক। বাকি তিনজন বাংলাদেশি, যাদের মধ্যে একজনের যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকত্বও ছিল।

এ হত্যাকাণ্ডের পর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ফোন করে জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

শেখ হাসিনাকে ফোন করে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি তার প্রেসিডেন্টের বার্তা পৌঁছে দিয়েছেন।

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় বাংলাদেশকে ‘যে কোনো সহযোগিতা’ করতে যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন তিনি।

[বিডিনিউজ]