রামুতে শেষ মূহুর্তের ঈদ বাজার জমে উঠেছে

অর্পন বড়ুয়া:
রামু উপজেলায় শেষ মূহুর্তে জমে উঠেছে ঈদ বাজার। বৃষ্টিতেও যেন থামছে না ক্রেতাদের ভিড়। জমজমাট বেচা-কেনার মধ্য দিয়ে নির্ঘূম রাত কাটাচ্ছেন ব্যবসায়িরা।উপজেলার প্রাণকেন্দ্র চৌমুহনী ষ্টেশন ঘুরে দেখা মেলে এ চিত্রের।

বিশেষ করে ছেলেদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে পাঞ্জাবী, পায়জামা, প্যান্ট, শার্ট ও টি-শার্ট; এমনটিই জানালেন বিক্রেতারা। পাশাপাশি মেয়েদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে ত্রি-পিচ, লেহেঙ্গা, টপস্।

বিদেশী পোশাকের পছন্দের তালিকায় রয়েছে ভারতীয় পোশাক খোকি ও কাটপিচ। এসব পণ্যগুলোর মূল্য ১৫০ টাকা থেকে ৩৫০০ টাকার মধ্যে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়িরা।

জেলা শহর কক্সবাজার ও রামুর শপিংমলগুলোর পাশাপাশি তরুণদের আগ্রহ অনলাইন বাজার। ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন পণ্যসম্ভার সাজিয়ে রেখেছে অনলাইন কেন্দ্রিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো। অনলাইন সাইটগুলোতে যুক্ত হয়েছে নতুন মডেলের বিভিন্ন পণ্য। ঘরে বসেই নিজের পছন্দের পোশাকটি হাতে পেতে তরুণরা ই-কমার্স সাইট এখনি (www.akhoni.com) ডটকম থেকে ছবি দেখে পছন্দের পণ্য অর্ডার করে বুঝে নিচ্ছে।

রামু মাজিদিয়া শপিং কমপ্লেক্সের নিচ তলায় সিরাজুল হক মেম্বারের মালিকানাধীন জেন্টস কালেক্শনের বিক্রেতা সুলতান মাহমুদ জানিয়েছেন, অন্যান্য বছরের মত এবারের ঈদে ক্রেতাদের ব্যাপক ভিড় রয়েছে। ব্যবসাও সন্তোষজনক হচ্ছে বলে জানান তিনি।

ক্রেতা জুবাইরা আকতার জানান, এবারের ঈদে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে স্বাচ্ছন্দেই কেনাকাটা করেছেন। বিশেষ করে তার মেয়ে ছোট্ট শিশু নিশাত তাজনিম তুবার জন্য ভারতীয় পোশাকই কিনেছেন। তবে এসব পোশাকের মূল্য সন্তোষজনক বলে জানিয়েছেন মন্ডল পাড়া এলাকার বাসিন্দা গৃহিনী জুবাইদা।