বৈশ্বিক মানবসম্পদ সূচকে পেছালো বাংলাদেশ

বিদেশ ডেস্ক:

বৈশ্বিক মানবসম্পদ সূচকে আগের বছরের চেয়ে পাঁচ ধাপ পেছালো বাংলাদেশ। বুধবার গ্লোবাল হিউম্যান ক্যাপিটাল ইনডেক্স প্রকাশ করেছে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক গবেষণা সংস্থা ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম (ডব্লিউইএফ)। এতে দেখা যায় শিক্ষিত ও দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টিতে ১৩০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১০৪তম। ১০০-এর মধ্যে এক্ষেত্রে বাংলাদেশের স্কোর ৫৭ দশমিক ৮৪। গতবছর এটা ছিল ৫৭ দশমিক ৬২। গতবছর এ প্রতিবেদনে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১২৪টি দেশের মধ্যে ৯৯তম।

তালিকায় থাকা দক্ষিণ এশিয়ার ছয়টি দেশের মধ্যে দক্ষ মানবসম্পদ সৃষ্টিতে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। ৭১ দশমিক ৬৯ স্কোর নিয়ে দেশটির অবস্থান ৫০তম। ৬১ দশমিক ৮৩ স্কোর নিয়ে ভুটান রয়েছে তালিকার ৯১তম স্থানে, ৫৭ দশমিক ৭৩ স্কোর নিয়ে ভারত ১০৫, নেপাল ৫৭ দশমিক ৩৫ স্কোর নিয়ে ১০৮ ও ৫৩ দশমিক ১ স্কোর নিয়ে ১১৮তম স্থানে রয়েছে পাকিস্তান।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বৈশ্বিক মানবসম্পদের চিত্রটি আগের তুলনায় অনেক বেশি জটিলতর হয়ে উঠেছে। উন্নয়নশীল দেশগুলোয় ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রতিদিন ২৫ হাজার নতুন কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে। আর এ সময়ে বিশ্বব্যাপী ২০ কোটির বেশি মানুষ কর্মহীন থাকবে। আগামী দশকগুলোয় প্রায় পাঁচ কোটি উচ্চ দক্ষতাসম্পন্ন কর্মীর ঘাটতি থাকবে।

ইনডেক্সে বৈশ্বিকভাবে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছে ফিনল্যান্ড। দেশটির স্কোর ১০০-এর মধ্যে ৮৫ দশমিক ৮৬। ৮৪ দশমিক ৬৪ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় নরওয়ে, ৮৪ দশমিক ৬১ নিয়ে তৃতীয় সুইজারল্যান্ড, ৮৩ দশমিক ৪৪ স্কোরে চতুর্থ জাপান ও ৮৩ দশমিক ৪৪ স্কোর নিয়ে পঞ্চম অবস্থানে রয়েছে সুইডেন। শীর্ষ দশে এর পরের অবস্থানগুলোয় রয়েছে যথাক্রমে নিউজিল্যান্ড, ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, কানাডা ও বেলজিয়াম।

মূলত দুটি স্তম্ভ শিক্ষা ও কর্মসংস্থানের ভিত্তিতে সূচকটি প্রণয়ন করা হয়েছে। এগুলোর ফলাফল পরিমাপ করা হয়েছে শূন্য থেকে ১০০-এর একটি স্কেলে। সবচেয়ে ভালো অবস্থান প্রকাশ করা হয়েছে ১০০ স্কোরের মাধ্যমে। আর পাঁচটি ভিন্ন ভিন্ন বয়স শ্রেণীর ক্ষেত্রে এ ফলাফল বিবেচনায় নেয়া হয়।

প্রতিবেদনে প্রতিটি স্তম্ভের অধীনে কয়েকটি উপসূচক রয়েছে। এর মধ্যে শিক্ষার ক্ষেত্রে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভর্তির হার, শিক্ষিতের হার, শিক্ষার গুণগত মান, বৃত্তিমূলক শিক্ষা ও কাজ করতে গিয়ে শেখার হার। আর কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বিবেচ্য বিষয়গুলো হলো— কর্মক্ষম মানুষের চাকরিতে নিয়োজিতের হার, বেকারত্বের হার, আংশিক বেকারত্ব, দীর্ঘমেয়াদি বেকারত্ব, দক্ষতা, শিশুদের কাজে নিয়োজিতের হার। এর সব ক্ষেত্রেই বাংলাদেশের অবস্থান অত্যন্ত দুর্বল।

[বাংলা ট্রিবিউন]