একই নামে বাসাবো বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষুকে হত্যার হুমকি

রামকৃষ্ণ মিশনের ধর্মগুরুকে চিঠি দিয়ে হত্যার হুমকির ১৩ দিন পর রাজধানীর সবুজবাগের বাসাবো বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষুকে একই নাম ব্যবহার করে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এবি সিদ্দিক নামের একজনের নাম ব্যবহার করে এই হুমকি দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার বৌদ্ধ বিহারে এই চিঠিটি আসে।

এই ঘটনায় ওই ভিক্ষু জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সবুজবাগ থানায় একটি জিডি করেছেন। সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল কুদ্দুস ফকির বাংলা ট্রিবিউনকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘চিঠিতে হুমকিদাতা নিজেকে এবি সিদ্দিক বলে পরিচয় দিয়েছেন। এই ঘটনায় মঙ্গলবার বৌদ্ধ বিহারের ভিক্ষু শুদ্ধানন্দ মহাথের জিডি করেছেন। এতে উল্লেখ করা হয়েছে, পোস্ট অফিসের মাধ্যমে পাঠানো এক চিঠিতে তাকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিজেই জিডির তদন্ত করছি। বৌদ্ধ বিহারের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। মহাথেরকেও নিরাপত্তা দেওয়া হয়েছে।’

রামকৃষ্ণ মিশনের হুমকিদাতার ঠিকানার সঙ্গে এই ঠিকানার কোনও মিল আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এখন কেবল তদন্ত শুরু করেছি। তদন্ত করে দেখি কোনও ঠিকানার মিল রয়েছে কিনা।’

এর আগে এবি সিদ্দিক নামে গত ১৫ জুন রামকৃষ্ণ মিশনের ধর্মগুরুকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছিলো। এ ঘটনায় মিশনের গুরু মৃদুল মহারাজ ওয়ারি থানায় রাতেই একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। এরপর পুলিশ এবি সিদ্দিককে খুঁজে বের করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পুলিশ জানায় তিনি একজন অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা। তার হাতের লেখার সঙ্গেও চিঠির লেখা মেলানো হয়। তবে পুলিশ ধারণা করে তাকে কেউ ফাঁসানোর জন্য এই হুমকি দিয়েছে।

ওই ঘটনার পর আবু বকর সিদ্দিকি সাংবাদিকদের জানান, তিনি ১৮ বছর সেনাবাহিনীতে চাকরি করেছি। ২০০৪ সালে অবসরে যাই। এরপর ব্যবসা করা শুরু করেন। তাকে হয়রানি করার জন্য কেউ তার নাম ঠিকানা ব্যবহার করতে পারে।

চিঠির ওপরের অংশে কম্পিউটার টাইপের মাধ্যমে ‘ইসলামিক স্টেট অব বাংলাদেশ, চান্দনা চৌরাস্তা ঈদগাঁও মার্কেট, গাজীপুর মহানগর’ লেখা রয়েছে।

[বাংলা ট্রিবিউন]