বিজিবির পৃথক অভিযানে ১১ হাজার ইয়াবা, আতশবাজী, মাইক্রোবাস জব্দ: আটক ৪

শহিদুল ইসলাম:
১৭ বিজিবির আওতাধীন ঘুমধুম ও বালুখালী বিওপির পৃথক পৃথক অভিযান চালিয়ে ১১ হাজার ২ শত ৫৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ৪ জন পাচারকারীকে আটক করতে সক্ষম হয়েছেন। এ সময় পাচারকারীদের ব্যবহৃত একটি মাইক্রোবাস জব্দ করেন।

ঘুমধুম বিওপির সদস্যরা আজ সোমবার সকালে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের বালুখালী টিভি রেলি কেন্দ্র এলাকায় টেকনাফ থেকে কক্সবাজারমূখী যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস ঢাকামেট্টো-চ-১৩-৬৬৬০ তল্লাশী চালিয়ে ১০ হাজার ২শ ৫০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট সহ ৪ পাচারকারীকে আটক করেন।

আটককৃতরা হলেন চাঁদপুর জেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের আবুল বশরারের ছেলে মেহেদী হাসান (২৮), টেকনাফ উপজেলার রঙ্গীখালী এলাকার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন (৩৬), চাঁদপুর জেলার মতলব এলাকার ইউনুছ বেপারির ছেলে মানিক বেপারী (৩৬) ও আবদুর রাজ্জাকের ছেলে শরীফ আহাম্মদ (২৯)।
এদেরকে আজ সোমবার দুপুরে উখিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

অপরদিকে বালুখালী বিওপির কোম্পানী কমান্ডার জিন্নাত আলী আমাদের রামু ডটকমকে বলেন, সোমবার ভোরে কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কের কাকরা ব্রীজ নামক এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১ হাজার ৫ পিস ইয়াবা, ২শ প্যাকেট আতশবাজি উদ্ধার করেন। এ সময় কাউকে আটক করতে পারেনি।

আটককৃত ইয়াবা, মাইক্রোবাস ও আতশবাজির মূল্য প্রায় ৬০ লক্ষাধিক টাকা বলে বিজিবি জানিয়েছেন।

১৭ বিজিবির অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল ইমরান উল্লাহ সরকার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।