সিরাজের আশ্রয়দাতা আ’লীগ নেতারও বিচার করতে হবে: নাসিম

অনলাইন ডেস্কঃ
আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম ফেনীর সোনাগাজীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যায় অভিযুক্ত অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে আশ্রয়দাতা কথিত আওয়ামী লীগ নেতারও বিচার চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগের একজন নেতা নুসরাতের মূল খুনি মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিয়েছেন। এরা ক্রিমিনাল, কখনও আওয়ামী লীগ করতে পারেন না। জীবনে কোনোদিন আওয়ামী লীগ করেননি, আওয়ামী লীগে বিশ্বাসও করেন না। এরা আওয়ামী লীগের দুর্নাম করেন। নুসরাতের খুনির সঙ্গে এসব লোকেরও বিচার করতে হবে। এদের কোনো ছাড় দেওয়া যাবে না।

শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ১৭ এপ্রিল ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত আলোচনা সভায় মোহাম্মদ নাসিম এসব কথা বলেন।

নুসরাতসহ সাম্প্রতিক সময়ে সব নারী ও শিশু হত্যার বিচার দ্রুত ট্রাইব্যুনালে করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, কোনো ফাঁকফোকর না রেখে বিশেষ ট্রাইব্যুনালে নুসরাত হত্যার বিচার করতে হবে। এতে দেশের মানুষ খুশি হবে। বাংলার জনগণ সরকারকে সাধুবাদ দেবে, সরকারের প্রতি তাদের আস্থা আরও বাড়বে। জনগণ সরকারের দিকে তাকিয়ে আছে।

নাসিম বলেন, ধর্মান্ধ রাজনীতিবিদরা নুসরাত হত্যার প্রতিবাদ না করে অসাম্প্রদায়িক অনুষ্ঠান মঙ্গল শোভাযাত্রার বিরোধিতা করে। এদের প্রতিরোধ করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগই একমাত্র দল ক্ষমতায় থেকে নিজের দলের কর্মীকেও খাতির করে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুধু নুসরাত নয়, সব হত্যার বিচার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করবেন।

মুজিবনগর দিবস প্রসঙ্গে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, মুজিবনগর দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরতে হবে। নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস জানাতে হবে। বাঙালির সঠিক ইতিহাসের আলোকে দেশ গঠনে ভূমিকা রাখতে হবে।

বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহসভাপতি রফিকুল আলমের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য দেন মোজাফফর হোসেন পল্টু, কামাল চৌধুরী, অ্যাডভোকেট বলরাম পোদ্দার, মনোরঞ্জন ঘোষাল, অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।