শতাধিক হজ এজেন্সিকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

ধর্ম ডেস্কঃ
বিগত হজ মৌসুমে শতাধিক হজ এজেন্সি হাজিদের জন্য অতি দূরে ও নিম্নমানের বাড়িভাড়া করেছিল। ফলে হজ ব্যবস্থাপনায় সমস্যা তৈরি হয়। তবে অতি দূরে এবং নিম্নমানের বাড়ি ভাড়া করায় সংশ্লিষ্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে কেন শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না- এই মর্মে কারণ দর্শানোর নোটিশ জারি করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

মোট ১০৩টি এজেন্সিকে আগামী ৭ দিনের মধ্যে কারণ দর্শানোর নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ এপ্রিল) ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব (হজ-৩) মোহাম্মদ শিব্বির আহমেদ উসমানী স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, ২০১৮ সালের হজ মৌসুমে বেসরকারি হজ এজেন্সিগুলোর ভাড়া করা বাড়ির তাসবিহ অনুমোদন প্রক্রিয়ায় সরেজমিন পরিদর্শনকালে দেখা যায়, ১০৩টি এজেন্সির মালিক বা মোনাজ্জেম তাদের হাজিদের জন্য অতি দূরে এবং নিম্নমানের বাড়ি ভাড়া করেন।

আরও বলা হয়, ২০১৮ সালের হজ ফ্লাইট শুরু হওয়ার কারণে তাদের ব্যক্তিগত অঙ্গীকারনামা রেখে হজযাত্রীদের সৌদি আরবে গমনের সুযোগ দেয়া হয়। তবে হজ এজেন্সিসমূহের কার্যক্রমের কারণে হজ ব্যবস্থাপনায় সমস্যা তৈরি হয়।

এদিকে আসন্ন হজ মৌসুমে অভিযুক্ত ১০৩টি এজেন্সি যেসব বাড়ি বা হোটেল ভাড়া করবে তার শতভাগ পরিদর্শন করা হবে এবং পরিদর্শনে অতি দূরে ও নিম্নমানের বাড়ি প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট এজেন্সির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।