জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণের মধ্যদিয়ে রামুতে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন

খালেদ শহীদ, রামুঃ
শহীদের রক্তের ঋণ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ বিনির্মাণের স্বপ্ন বাস্তবায়নের অঙ্গীকার ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণের মধ্যদিয়ে রামুতে যথাযোগ্য মর্যদায় পালিত হলো মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস।

তথ্য মন্ত্রাণলয় সম্পর্কীত স্থায়ী কমিটির সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি মঙ্গলতিবার (২৬ মার্চ) সকাল ৯ টায় রামু খিজারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও সালাম গ্রহণ করে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের দিনব্যাপী কর্মসূচী উদ্বোধন করেন।

২৬ মার্চ প্রথম প্রহরে রামু উপজেলা পরিষদস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও রামু খিজারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে দিবসের দিনব্যাপী কর্মসূচী শুরু করা হয়। উপজেলা প্রশাসনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদ মিনারে পুস্পমাল্য অর্পণ করে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপনের দিনব্যাপী কর্মসূচীর সূচনা করে। এছাড়া রামু সরকারি কলেজ, কাউয়ারখোপ হাকিম রকিমা উচ্চ বিদ্যালয়, জোয়ারিয়ানালা এইচ এম সাঁচী উচ্চ বিদ্যালয়, রশিদনগর নাদেরুজ্জামান উচ্চ বিদ্যালয়, গর্জনিয়া, কচ্ছপিয়া ইউনিয়নে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপন করা হয়েছে।

রামু খিজারী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস অনুষ্ঠানের অভিভাধন মঞ্চে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লুৎফুর রহমান ও রামু থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আবুল মনছুর উপস্থিত ছিলেন। এরপর অনুষ্ঠিত হয় কুচকাওয়াজ, শারীরিক কসরত প্রদর্শন, ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান। কুচকাওয়াজ ও শারীরিক কসরত প্রদর্শনে পুলিশ, আনসার-ভিডিপি, বি এন সি সি, ফায়ার সার্ভিস ওসিভিল ডিফেন্স, স্কুল, মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা ও সামাজিক প্রতিষ্ঠান, বাংলাদেশ স্কাউট, রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড ও শিশু কিশোর সংগঠন অংশ নেয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, অধ্যাপক পরীক্ষিৎ বড়ুয়া ও কন্ঠশিল্পী মানসী বড়ুয়া।
দিনব্যাপী মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ঐতিহাসিক ৭ মার্চর ভাষণের তাৎপর্য এবং দেশের উন্নয়ন অগ্রগতি’ বিষয়ে আলোচনা, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রামান্যচিত্র প্রদর্শনী, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা, রোগী ও এতিমখানায় উন্নতমানের খাবার পরিবেশন সহ মহিলা ও শিশুদের ক্রীড়া অনুষ্ঠান এবং উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একাদশ বনাম উপজেলা নির্বাহী অফিসার একাদশের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়।