খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ নেতাকে গুলি করে হত্যা

পাহাড়বার্তা ডেস্কঃ
খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফের এক নেতাকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে।

ইউপিডিএফের জেলা সংগঠক মাইকেল চাকমা জানান, শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে জেলার পানছড়ি উপজেলার অক্ষয়পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বিনাসন চাকমা ওরফে তারাবন (৪০) ইউপিডিএফ সমর্থিত গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের পানছড়ি উপজেলার সাবেক সভাপতি।বর্তমানে পানছড়ি উপজেলায় সংগঠনের গণসংযোগের দায়িত্বে ছিলেন।

তার বাড়ি রাঙ্গামাটি জেলার নানিয়ারচর উপজেলার কেরেতছড়ি গ্রামে। বেশ কয়েক বছর ধরে তিনি পানছড়িতে থাকতেন।

স্থানীয়রা জানান, ঘটনার সময় বিনাসন বাড়ির বাইরে ছিলেন। ৫/৭জন অস্ত্রধারী খুব কাছ থেকে তাকে গুলি করে জঙ্গলে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু ঘটে।

মাইকেল চাকমা এ ঘটনার জন্য সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিত পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতিকে দায়ী করেছেন।

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা) কেন্দ্রীয় ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক সুদর্শন চাকমা অভিযোগ বলেন, “এ ঘটনা ইউপিডিএফের অভ্যন্তরীণ বিরোধের বহিঃপ্রকাশ।”

পানছড়ি থানার ওসি নূরে আলম জানান, ঘটনাস্থল অনেক দুর্গম। তাই লাশ উদ্বারে সময় লাগবে।