শচীন-কোহলি-ধোনিদের নির্বাচনে অংশ নিতে মোদির আহ্বান

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ
শিরোনাম দেখে ভয় পাওয়ার কারণ নাই যে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী শচীন টেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি কিংবা মহেন্দ্র সিং ধোনিদের নির্বাচনে প্রার্থী হতে বলেছেন। মূলতঃ ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে দেশটির নাগরিকদের ভোট দানে উৎসাহ বাড়াতে শচীন টেন্ডুলকার, অধিনায়ক কোহলির কাছে আহ্বান জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী মোদি।

ভারতের লোকসভা নির্বাচন একেবারে দোরগোড়ায়। ১১ এপ্রিল শুরু হবে লোকসভা নির্বাচন। যেখানে ৭ ধানে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ১৯ মে পর্যন্ত। সেখানে যেন ভোটাররা সর্বোচ্চ পরিমাণে উপস্থিত হয় সে বিষয়ে সাধারণ মানুষের কাছে আহ্বান জানানোর জন্যই মূলতঃ ক্রিকেটার থেকে শুরু করে ভারতের আইকনিক ক্রীড়া তারকাদের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন মোদি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক বেশি অ্যাক্টিভ ভারতের প্রধানমন্ত্রী। আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখেও সেই সোশ্যাল মিডিয়াকেই হাতিয়ার বানিয়েছেন তিনি। ভারতের নাগরিকরা যেন ভোটদান থেকে বিরত না থাকেন এবং সর্বোচ্চ পরিমাণে ভোটদানে অংশগ্রহণ করে, সে বিষয়ে কাজ করার জন্যই শচীন-কোহলি-ধোনিদের আহ্বান জানান তিনি।

জনপ্রিয়তার কথা ভেবেই কিংবদন্তী ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকার, বিরাট কোহলি, মহেন্দ্র সিং ধোনি, অনিল কুম্বলে, ভিভিএস লক্ষ্মণ এবং বিরেন্দর শেবাগের কাছে আবেদন জানিয়েছেন মোদি।

বর্তমান ভারতীয় দলের ক্রিকেটারদের উদ্দেশ্যে টুইট করে মোদি লিখেছেন, ‘প্রিয় ধোনি, কোহলি, রোহিত। ক্রিকেট মাঠে তোমাদের অসাধারণ রেকর্ড রয়েছে; কিন্তু এবার তোমাদের লক্ষ্য ১৩০ কোটি জনগণকে ভোটদানে উৎসাহ দেওয়া। যাতে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে সবেচেয়ে বেশি সংখ্যক মানুষ ভোট দেওয়ার ক্ষেত্রে ভারত নতুন রেকর্ড গড়তে পারে। এমনটা ঘটলে, গণতন্ত্র জিতবে।’

অন্য আরেকটি টুইটে সাবেক ক্রিকেটার শচীন, শেবাগ, লক্ষ্মণ ও কুম্বলের প্রতি মোদীর আবেদন, ‘ক্রিকেট পিচে তোমাদের লড়াইয়ে অতীতে লক্ষ লক্ষ দেশবাসী উৎসাহিত হয়েছে। আবার সময় এসেছে দেশবাসীকে উৎসাহ দেওয়ার। তবে এবার রেকর্ড সংখ্যক ভোটদানের ক্ষেত্রে।’

শুধু ক্রিকেটারই নয়, অন্য ক্রীড়াবিদদেরও একইভাবে আবেদন জানিয়েছেন মোদি। ভারতের তারকা শার্টলার পিভি সিন্ধু, সাইনা নেহওয়াল, কিদাম্বী শ্রীকান্ত এবং অলিম্পিকে পদক জয়ী কুস্তিগীর সুশীল কুমার, যোগেশ্বর দত্তের কাছে আবেদন জানান ভারতের প্রধানমন্ত্রী। তরুণদের ভোটদানে উৎসাহ দিতে এ সকল ক্রীড়াবিদদের এগিয়ে আসতে বললেন তিনি।

দেশের তিন কিংবদন্তি সম্পর্কে টুইটে মোদি লিখেছেন, ‘যখন লতা মুঙ্গেশকর, শচীন টেন্ডুলকার এবং এআর রহমান কিছু বলে, দেশেবাসী তা শোনে। আমি এসব ব্যক্তিত্বদের অনুরোধ করব, ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে দেশবাসীকে ভোটদানে উৎসাহ দিতে।’