হিলারির চেয়ে শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা বেশি

অনলাইন ডেস্কঃ
সাবেক মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনের চেয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা অনেক বেশি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ড. আব্দুর রাজ্জাক।

রোববার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ২০১৮ সালে ফোর্বস ম্যাগাজিনের মতে ক্ষমতাধর শত নারীর তালিকায় রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা ২৬তম স্থান অর্জন করেন। আর হিলারি ক্লিনটন, যিনি বিশ্ব ব্যাংককে আমাদের পেছনে লাগিয়েছিলেন, আমরা দুর্নীতি করেছি সে হিসেবে চিহ্নিত করার জন্য, আমাদের গায়ে দুর্নীতির কালিমা লেপন করার জন্য। সেই হিলারি ক্লিনটন আগে তিনের মধ্যে ছিলেন, এখন পিছিয়ে তিনি ১ শতের কাছাকাছি গেছেন।’

কৃষিমন্ত্রী বলেন, তার (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) প্রভাব এতটাই সুবিস্তৃত ২০১৬ সালের মার্চে যুক্তরাষ্ট্রের ফরচ্যুন ম্যাগাজিনের দৃষ্টিতে তিনি বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় নেতাদের তালিকায় দশম স্থানে রয়েছেন। ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যেই তিনি একমাত্র নারী নেতা হিসেবে আখ্যায়িত হয়েছেন।

তিনি বলেন, শুধু মেধা দক্ষতায় নয়, সততাতেও আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব জুড়ে স্বীকৃত, পিপলস অ্যান্ড পলিটিক্স নামে একটি গবেষণা প্রতিষ্ঠান ১৭৩টি দেশের রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের কর্মকাণ্ড বিশ্লেষণ করে বলছে, সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃতীয়। জাতীয় গণ্ডি পেরিয়ে বিশ্ব নেতৃবৃন্দের কাতারে আমাদের নেত্রী স্ববিশেষভাবে উজ্জ্বল।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব গুণে যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ও বিশ্ব ব্যাংকের সাবেক প্রধান ম্যাগনামারার বক্তব্য ভুল প্রমাণিত হয়েছে মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের এই নেতা।