জনপ্রতিনিধি হওয়ার আকুতি জানিয়ে অধ্যাপক শফিউল্লাহর খোলা চিঠি

হাফিজুল ইসলাম চৌধুরী :
একটি বারের জন্য হলেও জনপ্রতিনিধি হওয়ার আকুতি জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) সম্মানিত ভোটারদের উদ্দেশ্যে খোলা চিঠি লিখেছেন- বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী অধ্যাপক মো.শফিউল্লাহ।

রোববার (১০ মার্চ) দুপুরে নিজের ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দিয়ে তিনি এই আহবান জানান।

ওই খোলা চিঠিতে অধ্যাপক মো.শফিউল্লাহ উল্লেখ করেছেন- তিনি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলে তাঁর বাবার মত উন্নয়ন সাধন করে নাইক্ষ্যংছড়িকে ঢেলে সাজাবেন। প্রত্যেক ছেলে-মেয়েদের ভবিষ্যত গড়ার কাছে নিজেকে বিলিয়ে দেবেন। তাঁর বাবার মৃত্যুর পর অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করে তাঁকে বড় হতে হয়েছে এবং শিক্ষকতার মত মহান পেশা ছেড়ে তিনি জনগনের সেবা করার জন্য এসেছেন বলেও জানিয়েছেন শফিউল্লাহ।

পাঠকদের সুবিধার জন্য খোলা চিঠিটি হুবুহু তোলে ধরা হল:

“আমার প্রিয় নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলাবাসী”
আসসালামু আলাইকুম/ নমস্কার

আমি বারবার আপনাদের কাছে গিয়েও কখনো জনপ্রতিনিধি হওয়া সুযোগ পাইনি। আমাকে একবার আপনারা জনপ্রতিনিধি হাওয়ার সুযোগ দেন।
আমার বাবা যেমন এই এলাকায় রাস্তাঘাট, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সামগ্রিক উন্নয়ন ও জনসেবা করেছেন l আমিও বাবার মতো জনপ্রতিনিধি হয়ে আপনাদের সন্তানদের জন্য ভবিষ্যৎ গড়ার কাছে নিজেকে বিলিয়ে দিবো।

আমার পিতার মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যুর পর অনেক বাধা বিপত্তি চড়াই উৎরাই মোকাবেলা করে আজ এই পর্যন্ত, পড়াশোনা অতপর কর্মজীবন কলেজের শিক্ষকতার মতো মূল্যবান পেশা ত্যাগ করে বাবার মতো আপনাদের সেবা করতে এসেছি।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার বিচারে আমাকে যোগ্য মনে করে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দিয়েছেন, আমি কৃতজ্ঞ।

নানা ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে অধিকার নিয়ে আপনাদের কাছে যোগ্যতা বিচারে আগামী ১৮ তারিখে নৌকা প্রতীকে ভোট ভিক্ষা চাইছি।

আমাকে একবার জনপ্রতিনিধি হবার সুযোগ দিন আমি আমার জীবনের শেষদিন পর্যন্ত আপনাদের সেবা করে যাবো।

শান্তি সম্প্রীতির নাইক্ষ্যংছড়ি গড়ার চলমান উন্নয়ন ও অগ্রগতি – আমার স্বপ্ন আমার অঙ্গীকার।

আপনাদের ভাই, বন্ধু,স্নেহধন্য সন্তান,
( মোহাম্মদ শফিউল্লাহ)
নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী।