কোহলির সেঞ্চুরিও জেতাতে পারল না ভারতকে

ক্রীড়া ডেস্কঃ
রাঁচিতেও সেঞ্চুরি করেছেন কোহলি। অধিনায়কের সেঞ্চুরি অবশ্য জয় এনে দিতে পারেনি ভারতকে। সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ জিতেছে ৩২ রানে

সেঞ্চুরির পর বিরাট কোহলির উদযাপনটা হলো সাদামাটা। ব্যাটটা উঁচিয়ে শুধু চারদিকে ঘোরালেন। উদ্‌যাপন সাদামাটা হওয়ার দুটি কারণ হতে পারে—ভারতীয় অধিনায়ক হয়তো ভেবেছেন, সেঞ্চুরি করা তাঁর কাছে নিয়মিত ঘটনা। এটা নিয়ে আদিখ্যেতার কী আছে! অথবা উচ্ছ্বাস পরে করা যাবে, যেতে হবে বহুদূর। উদ্‌যাপন যেমনই হোক, রান তাড়া করার রাজা কোহলির সেঞ্চুরিটা আজ বৃথা গেছে। রাঁচিতে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ভারত হেরেছে ৩২ রানে।

ভারতীয় ক্রিকেটাররা আজ খেলতে নেমেছিলেন সেনাবাহিনীর জলপাই রাঙা টুপি পরে। কাশ্মীরে জঙ্গি হামলায় নিহত ব্যক্তিদের স্মরণে ম্যাচের আগে সতীর্থদের হাতে মিলিটারি ক্যাপ তুলে দেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। কোহলির ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল, টুপিতে উজ্জীবিত হয়ে খেলতে নেমেছেন! দলকে জিতিয়েই মাঠ ছাড়বেন। সেটি হয়নি। সেঞ্চুরির আগেই নড়বড়ে নব্বইয়ে কাটা পড়তে পারেন। ৪১তম ওয়ানডে সেঞ্চুরি থেকে ভারত অধিনায়ক তখন ২ রান দূরে, এই সময়ে কিনা গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের বোলিংয়ে ক্যাচ ছাড়লেন উইকেটকিপার অ্যালেক্স ক্যারি। নতুন জীবন পাওয়া কোহলি চার বল পরেই ডাবলস নিয়ে পেয়ে গেলেন টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি।

ক্যাচ মিস ও কোহলির তিন অঙ্ক ছোঁয়ার ঘটনা ভারতীয় ইনিংসের ৩৫ ওভারের। কোহলি অবশ্য বেশিক্ষণ টেকেননি। অ্যাডাম জাম্পার গুগলিতে বিভ্রান্ত হয়ে বোল্ড হওয়ার আগে ৯৪ বলে ১২৩ রান করেছেন কোহলি। এর আগে জাম্পা ফিরিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি ও কেদার যাদবকেও। ২৭ রানেই ৩ উইকেট খোয়ানো দলকে ৮৬ রানে রেখে ফিরে যান রাঁচির ঘরের ছেলে ধোনি। ঘরের মাঠে সম্ভাব্য শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ধোনি করেছেন ২৬। এরপর কেদারকে নিয়ে ৮৮ রান যোগ করেন কোহলি। কোহলি বিদায় নেওয়ার পর একটা পর্যায়ে ম্যাচ ও সিরিজ জিততে ৬০ বলে ৮৭ রানের সমীকরণ মেলানোর ছিল ভারতের। শেষ পর্যন্ত তারা সেটা মেলাতে পারেনি।

প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ৩১৩ রান তোলে অস্ট্রেলিয়া। দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও উসমান খাজা ৩১.৫ ওভারেই দলকে এনে দিয়েছিলেন ১৯৩ রান। এমন শক্ত ভিতের ওপর দাঁড়িয়েও কিনা দলটি শেষ ১৮ ওভারে তুলতে পারল ১২০ রান। অনেক দিন পর রানের দেখা পাওয়া অধিনায়ক ফিঞ্চ করেছেন ৯৩ রান। খাজা আউট হয়েছেন ওয়ানডে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি তুলেই। ১১৩ বলে ১০৪ করেছেন ২৪তম ওয়ানডে খেলা খাজা। আরও ২০-৩০ রান বেশি তুলতে না পারার আফসোস শেষ পর্যন্ত অস্ট্রেলীয়দের দূর হয়েছে, রাঁচিতে জিতে সিরিজ আপাতত বাঁচিয়েছে।