রামুর শিক্ষিকা শিখা রানী দাশ গুপ্ত আর নেই: শোক

রামু প্রতিনিধি:
রামুর অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষিকা শিখা রানী দাশ গুপ্ত (৫৪) দূরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে শনিবার, ১৮ জুন দুপুর ১২ টা ৩০ মিনিটে রামুর শ্রীকুলস্থ বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি রামু সর্বজনীন কেন্দ্রীয় কালী মন্দিরের উপদেষ্টা ননী গোপাল দে’র সহধর্মিনী ও সাধারণ সম্পাদক চন্দন দাশ গুপ্তের বড় বোন।

শিখা রানী দাশ গুপ্ত মৃত্যুকালে স্বামী, ১ ছেলে, ১ মেয়ে, আত্মীয় স্বজন ও অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে যান।

শিক্ষিকা শিখা রানী দাশ গুপ্ত ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর রামু সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে স্বেচ্ছা অবসর নেন। এছাড়াও তিনি রামু বার্মিজ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও দীর্ঘদিন সহকারী শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

শিক্ষিকা শিখা রানী দাশ গুপ্তের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, রামু সর্বজনীন কেন্দ্রীয় কালী মন্দির পুরোহিত সজল ব্রাহ্মণ চৌধুরী, সভাপতি রতন মল্লিক, রতন দেওয়ানজী, তপন মল্লিক, কৃষ্ণ দাশ, দিলীপ দেওয়ানজী, মাস্টার সুনীল শর্মা, মাষ্টার প্রিয়তোষ চক্রবর্তী পিন্টু, মাষ্টার জয়ন্ত ধর, বটু ধর, ডা. পুলক ধর, রামকুট তীর্থধাম পরিচালনা কমিটির সভাপতি এডভোকেট দিলীপ ধর, সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ সিকদার, অর্থ সম্পাদক বিজয় ধর, সন্দীপ শর্মা, রামু উপজেলা সৎসঙ্গ আশ্রমের সভাপতি সুশান্ত পাল বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ ভট্ট্রাচার্য, অর্থ সম্পাদক তপন ঘোষ, সাংগঠনিক সম্পাদক অনিল পাল, অরুন ধর, প্রধান উপদেষ্টা ডা. দুলাল চন্দ্র পাল, ডা. আশুতোষ চক্রবর্তী মন্টু, রামু শংকর মঠ ও মিশনের সভাপতি মাষ্টার অনিল শর্মা (সাবেক এটিও), সাধারণ সম্পাদক মিরন দাশ প্রমূখ।